• রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১১:০৫ অপরাহ্ন
Notice
We are Updating Our Website
/ মতামত
লীনা পারভীন: চাকরি চলে যাওয়া একজন মানুষের জীবনে আর সকল দুর্ঘটনার চাইতে কম বেদনার না। গ্লোবালি ইকোনোমিক ক্রাইসিস শুরু হয়েছিলো ২০২২ থেকে। অনুমান করা যাচ্ছিলো এটা ২০২৩ ছাড়িয়ে ২৪ এও বিস্তারিত
বাংলাদেশে সাধারণত তিন ধরনের পাসপোর্ট হয়। যথাক্রমে লাল, নীল ও সবুজ মলাটের। লাল মলাট হচ্ছে, কূটনৈতিক পাসপোর্ট। নীল মলাট হচ্ছে, সরকারি কর্মজীবীদের পাসপোর্ট। অপরদিকে সবুজ মলাটের পাসপোর্ট হচ্ছে সর্ব সাধারণের
পৃথিবীতে কোনো জাতির উন্নতির নিজস্বতার দিকে যদি আমরা দৃষ্টিপাত করি তাহলে আমরা যেটা দেখতে পাবো সেটা হচ্ছে সে জাতির তার নিজস্ব প্রাকৃতিক সম্পদের প্রতি সচেতনতা ও যথাযথ ব্যবহার। কোনো জাতির
টানা চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়ে শেখ হাসিনার আত্মবিশ্বাস যে আগের তুলনায় বেড়েছে, তা টের পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন ঘটনা থেকেই। গত সংসদ নির্বাচনে অংশ না নেওয়া বিএনপিসহ তার মিত্র দলগুলো
আমরা মুখে গণতন্ত্রের কথা বলি বটে, কিন্তু জীবন আচরণে আমরা গণতন্ত্রকে ধারণ করি না। আমরা গণতন্ত্র বলতে পাঁচবছর পরপর নির্বাচনকেই বুঝি শুধু। কিন্তু গণতন্ত্র আসলে একটি জীবন বিধান। আমাদের জীবনের
সদ্য কারামুক্ত বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান সরোয়ারের বাসায় গিয়ে তার সার্বিক খোঁজখবর নিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান। রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে তিনি মুজিবুর রহমানের
স্বাস্থ্যখাতে অব্যবস্থাপনা এবং বিশৃঙ্খলাজনিত মৃত্যু এবং পঙ্গুত্ব ক্রমেই বাড়ছে, যা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এর পক্ষে কোনো অজুহাত দাঁড় করানোর সুযোগ নেই। স্বাস্থ্যসেবার মতো জীবন ঘনিষ্ঠ এবং মৌলিক বিষয়ের
কিছুদিন আগে আমি লিখেছিলাম, তবে কি বাংলাদেশের মানুষ এখন খতনার জন্যও বিদেশ যাবে? তখন অনেকে বলেছিলেন একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা দিয়ে এত বড় মন্তব্য করা যাবে না। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই
জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে লবণাক্ততা ঝড়-ঝন্ডা, অনিয়মিত বৃষ্টিপাত, উচ্চ তাপমাত্রা, ফ্লাশ-ফ্লাড ইত্যাদির তীব্রতা ত্বরান্বিত করে। বাংলাদেশে আয় ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে অনন্য অবদানকারী হলো কৃষিক্ষেত্র। শস্য উৎপাদন গ্রামীণ আয় বৃদ্ধি করে এবং
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে পড়ার সময় আমাদের খণ্ডকলীন শিক্ষক ছিলেন শাহেদ কামাল স্যার। উনি একজন সাংবাদিক ছিলেন। শাহেদ কামাল স্যার খণ্ডকালীন শিক্ষক হলেও ওনার চাপে আমাদের অবস্থা বেশ
সেনা শাসক জিয়াউর রহমানের হাত ধরে ক্যান্টনমেন্টের জন্ম হলেও পরবর্তীতে স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলনে রাজপথে থেকে গণতান্ত্রিক চরিত্র অর্জন করে বিএনপি। বাংলাদেশের রাজনীতির মূলত দুটি ধারা— আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী লীগ
ব্রিটিশ ঔপনিবেশের আধিপত্যের বিরুদ্ধে এ দেশের মানুষকে যে সংগ্রাম করতে হয়েছে তারই ধারাবাহিকতায় ১৯৪৭ সালে যে স্বাধীনতা এল সেটা যে প্রকৃত স্বাধীনতা নয় তা বুঝতে মানুষের বিলম্ব ঘটেনি। প্রথম কারণ
নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের পর এক মাসের বেশি সময় চলে গেলেও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম কমার কোনো লক্ষণ নেই। সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে হাকডাক করা হচ্ছে, কিন্তু মূল্য বাড়ানোর নেপথ্য কারিগরেরা কানে