• সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৫:৩২ অপরাহ্ন

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ‘বাইরের ইন্ধন’ রয়েছে, বললেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০২৪

জনপ্রশাসনমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, আমরাও চাই কোটার বিষয়টি সুন্দরভাবে নিষ্পত্তি হয়ে যাক। কোটা সংস্কারের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বাদ দিয়ে সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ‘বাইরের ইন্ধন’ রয়েছে।

তিনি বলেন, কোটা সংস্কার দরকার। কোটা কতটুকু থাকবে তা নিয়ে আদালতে যুক্তিতর্ক হতে পারে। কিন্তু রাস্তায় থেকে আন্দোলন করলে, তাতে জনদুর্ভোগ ছাড়া কিছু হয় না।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সচিবালয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

কোটা সংস্কার কমিশন গঠন করা হবে কিনা- জানতে চাইলে জনপ্রশাসনমন্ত্রী বলেন, সবকিছুই সম্ভব যদি এখানে আদালতের বিষয় না থাকতো। আদালতের বিষয় আদালতে সমাধান হোক। এই সমাধানের পর যদি আরও কিছু আলোচনা করতে হয়, সেটি আলোচনা করার জন্য আমরা সবসময়…(প্রস্তুত)।

তিনি বলেন, দেশের কল্যাণে, আমাদের শিক্ষার্থীদের কল্যাণে, আমাদের সন্তানদের কল্যাণ যা করা লাগে আমরা সবকিছু করতে প্রস্তুত আছি।

এই আন্দোলনে বাইরের ইন্ধন রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন-কারো দ্বারা প্ররোচিত না হতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানাই।

এ সময় তিনি আরও বলেন-যারা এদেশের মানুষের কল্যাণ চায় না, আওয়ামী লীগ সরকার নিম্ন আয়ের দেশ থেকে উন্নয়ন করে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে চায়, এটি যারা চায় না তারাই এসব আন্দোলনে ইন্ধন জোগাচ্ছে। একটি কুচক্রী মহলের ইন্ধনেই কোটা বিষয়টিকে জটিল করে তোলা হচ্ছে।

এদিকে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের ওপর বুধবার (১০ জুলাই) চার সপ্তাহের জন্য স্থিতাবস্থা জারি করেছেন আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে এই সময়ের মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষ ও শিক্ষার্থীদের হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল করতে বলেছেন আদালত। এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য ৭ আগস্ট দিন ধার্য করা হয়েছে।

এ আদেশের ফলে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করে ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র বহাল থাকছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর