• সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৫:৫৬ অপরাহ্ন

কোপার সেমিফাইনাল ফিট না হলেও খেলবেন মেসি

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : মঙ্গলবার, ৯ জুলাই, ২০২৪

কোপা আমেরিকায় টানা দ্বিতীয় ফাইনাল থেকে এক ধাপ দূরে আর্জেন্টিনা। আগামীকাল বুধবার (১০ জুন) ভোরে প্রথম সেমিফাইনালে কানাডার মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। টুর্নামেন্টের শেসের দিকে চলে এলেও এখনও নিজের সেরাটা দেখাতে পারেননি লিওনেল মেসি। গ্রুপ পর্বে চিলির বিপক্ষে পাওয়া চোট ভোগাচ্ছে মেসিকে। কোয়ার্টার ফাইনালে ইকুয়েডরের বিপক্ষে ম্যাচটা গড়িয়েছিল টাইব্রেকারে। সেমিফাইনালে তাই দলে পরিবর্তন আনার কথা ভাবছেন আলবিসেলেস্তেদের কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি।

মেট লাইফ স্টেডিয়ামে আর্জেন্টিনার সামনে পুঁচকে কানাডার পাত্তা পাওয়ারই কথা নয়। তবু সেমিফাইনালে সতর্ক আর্জেন্টিনা। নকআউট ম্যাচে পা হড়কালেই মৃত্যুকূপে তলিয়ে যেতে হবে। এমন ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে ভাবাচ্ছে লিওনেল মেসির ফিটনেস। চিলির বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে চোট পেয়েছিলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। এরপর পেরুর বিপক্ষে ম্যাচটায় আর খেলেননি তিনি।

কোয়ার্টার ফাইনালে ইকুয়েডরের বিপক্ষে শুরুর একাদশেই ছিলেন মেসি। কিন্তু একবার ইকুয়েডরের গোলপোস্টে বল লাগানো ছাড়া বলার মতো কিছুই করতে পারেননি। নির্ধারিত সময়ের পর ম্যাচ টাইব্রেকারে গড়ালে পানেনকা শট নিতে গিয়ে বল মেরেছেন পোস্টে। শেষ পর্যন্ত এমি মার্টিনেজের বীরত্বে অবশ্য আর্জেন্টিনাই জয় পেয়েছে।

সেমিফাইনালে কানাডার বিপক্ষে ম্যাচের আগেও আলোচনায় মেসিই। এই ম্যাচের আগে ফিট আছেন তো মেসি? খেলবেন তো সেমিফাইনাল?

আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি অবশ্য নির্ভার। মেসিকে খেলানো নিয়ে মনে কোনো দ্বিধাকে জায়গা দিচ্ছেন না তিনি। ফুলফিট হলে শুরুর একাদশেই থাকবেন এই মহাতারকা। কিন্তু যদি শতভাগ ফিট না হন? সে ক্ষেত্রেও স্ক্যালোনি ঝুঁকি নিতে রাজি। দরকার হলে সাবস্টিটিউট খেলোয়াড় হিসেবেই তাকে খেলাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে স্ক্যালোনি বলেন, ‘সে খেলার জন্য ৯৯ ভাগ ফিট। আমার কাছে কখনোই মনে হয়নি যে সে খেলার জন্য ফিট নয়। কোনো সন্দেহ নেই যে আগামীকাল খেলার জন্য সে ফিট যথেষ্ট ফিট আছে।’

সেমিফাইনালে কানাডার বিপক্ষে মেসিকে পেতে কোচ কতখানি মুখিয়ে আছেন তা পরের কথাতেই স্পষ্ট, ‘এটা আমার জন্য খুব সহজ সিদ্ধান্ত (মেসিকে খেলানো), এটা খুবই অনুমিত সিদ্ধান্ত যে, সে যদি ভালো অনুভব করে, সে খেলবে এবং সে যদি পুরোপুরি ভালো না থাকে তবে শেষের ৩০ মিনিট খেলবে। এটা খুব সহজ।’

শুধু মেসিই নন, এই ম্যাচে মেসির পাশে থাকছেন ডি মারিয়াও। ইকুয়েডরের বিপক্ষে ম্যাচে দলের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট নন স্ক্যালোনি। তাই নিকো গঞ্জালেসকে বসিয়ে ডি মারিয়াকে ফেরাচ্ছেন তিনি।

মাঝমাঠে জিওভান্নি লো সেলসো অথবা লিয়ান্দ্রো পারেদেসের মধ্যে একজন কানাডার বিপক্ষে থাকতে পারেন। আর তা না হলে এই ম্যাচেও এনজো ফার্নান্দেজের ওপর আস্থা রাখতে পারেন স্ক্যালোনি।

আক্রমণভাগে একটা বড়সড় পরিবর্তনের আভাস দিয়েছেন আর্জেন্টাইন সাংবাদিক গাস্তন এদুল। তিনি জানিয়েছেন, সেমিফাইনালে কানাডার বিপক্ষে ফরোয়ার্ড হিসেবে হুলিয়ান আলভারেজে আস্থা রাখছেন আর্জেন্টিনার কোচ। সে ক্ষেত্রে কপাল পুড়তে চলেছে এবারের কোপা আমেরিকার সর্বোচ্চ গোলদাতা লাউতারো মার্টিনেজ। ৪ গোল করা ইন্টার মিলানের স্ট্রাইকারকে সে ক্ষেত্রে বেঞ্চ গরম করতে হবে।

আর্জেন্টিনার সম্ভাব্য একাদশ: এমি মার্টিনেজ; নাহুয়েল মলিনা, ক্রিস্টিয়ান রোমেরো, লিসান্দ্রো মার্টিনেজ, নিকোলাস ট্যালিয়াফিকো; রদ্রিগো ডি পল, আলেক্সিস ম্যাক অ্যালিস্টার, এনজো ফার্নান্দেজ/ লো সেলসো/ পারেদেস, ডি মারিয়া; লিওনেল মেসি ও হুলিয়ান আলভারেজ।

 


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর