• সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৪:৫০ অপরাহ্ন

কুড়িগ্রামে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : রবিবার, ১৬ জুন, ২০২৪

কুড়িগ্রামে গত কয়েকদিন ধরে সবকটি নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। বিশেষ করে তিস্তা নদীর পানি বেড়ে নদী তীরবর্তী নিম্নাঞ্চলসমূহ পানিতে তলিয়ে গেছে। ফলে নদনদী তীরবর্তী মানুষজন রয়েছেন বন্যা আতংকে।

রবিবার দুপুরে কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: রাকিবুল ইসলাম জানান, সবগুলো নদ-নদীর পানি বাড়লেও তিস্তা নদীর পানি কিছুটা কমেছে। তবে তা এখনও বিপৎসীমার কাছাকাছি প্রবাহিত হচ্ছে। তাছাড়া ধরলা ও দুধকুমার নদীর পানিও সমতল সময় বিশেষ দ্রুত বৃদ্ধি পেতে পারে বলে জানান তিনি।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় তিস্তা নদীর পানি কাউনিয়া পয়েন্টে ২০ সে.মি কমে এখন বিপদসীমার ৪১ সে.মি নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে তিস্তা নদীর তীরে মানুষজন বন্যার আশংকা করছেন। যেকোন মুহূর্তে ঘরবাড়ি পানিতে তলিয়ে যেতে পারে বলে আশংকা এ নদী তীরবর্তী মানুষের।

পানি বাড়ায় তিস্তা ও ধরলা নদীর কিছু চর ও দ্বীপচরে পানিতে তলিয়ে গেছে। ডুবে গেছে চরের উঠতি বাদাম ও অন্যান্য ফসল। ফলে বিপাকে পড়েছেন এখানকার কৃষকরা। রাজারহাট উপজেলার খিতাবখাঁ গ্রামের কৃষক আব্দুল মালেক জানান, নদীর চরে আমরা অনেক ফসল ফলাই। এবার বাদাদের অনেক ভালো ফলন হয়েছে। কিন্তু, তিন চার দিনের উজানের পানি এসে তিস্তা নদীর চর ডুবে যায়। এখন পানিতে কিছু বাদাম তুলছি কিছু পানিতেই ডুবে আছে। অনেকেরই একই অবস্থা। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল আরীফ জানান, বন্যা মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি রাখা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর