• সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ১০:২৫ পূর্বাহ্ন

১৫ বছরের গবেষণায় নীল তিমি সম্পর্কে যা জানা গেলো

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : রবিবার, ১৯ মে, ২০২৪

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় প্রাণী নীল তিমি। বিজ্ঞানীরা দীর্ঘ ১৫ বছর অ্যান্টার্কটিকায় বসবাসকারী তিমিদের ওপর একটি গবেষণা করেছেন। তারা আবিষ্কার করেছেন, তিমিরা কী শব্দ করে। একটি পুরুষ তিমি কী শব্দ করে এবং একটি মহিলা তিমি কী শব্দ করে? সোনিক জরিপে এ ফলাফল উপস্থাপনও করেছেন তারা।

এজন্য গবেষকরা সোনার (সাউন্ড নেভিগেশন এবং রেঞ্জিং) নামক প্যাসিভ অ্যাকোস্টিক ডিভাইস ব্যবহার করেছেন। তাদের সাহায্যে, গবেষকরা ৩ হাজার ৯০০ ঘণ্টা শব্দ ডাটা সংগ্রহ করেছেন। দেখা গেছে, তিমি তিন ধরনের শব্দ উৎপন্ন করে।

গবেষণাটি করা হয় সামুদ্রিক স্তন্যপায়ী অ্যাকোস্টিশিয়ান ব্রায়ান মিলারের নেতৃত্বে। মিলার অস্ট্রেলিয়ান অ্যান্টার্কটিক প্রোগ্রামের সাথে যুক্ত। অ্যান্টার্কটিক নীল তিমির আচরণ এখানে হাইলাইট করা হয়েছে। গবেষণাটি ফ্রন্টিয়ার্স ইন মেরিন সায়েন্সে প্রকাশিত হয়েছে।

বিজ্ঞানীরা যে তথ্য সংগ্রহ করেছেন তা তাদের নীল তিমির জনসংখ্যা পর্যবেক্ষণ করতে সহায়তা করবে। তথ্য পরীক্ষা করার পর, গবেষকরা দেখতে পান, তিমি তিনটি নির্দিষ্ট ধরনের শব্দ উৎপন্ন করে। জেড-কল নামে এক ধরনের কল আছে, যা শুধু পুরুষ তিমি উৎপাদন করে। ইউনিট-এ কল হলো অন্য ধরনের কল যা শুধু এ এলাকায় পাওয়া যায়। যেখানে ডি-কল পুরুষ এবং মহিলা উভয় দ্বারা উৎপাদিত হয়। এ কলগুলোর সাহায্যে বিজ্ঞানীরা তিমিদের জনসংখ্যা এবং আচরণ বুঝতে পারেন।

বিজ্ঞানীরা এখনও এ কলগুলোর অর্থ খুঁজে বের করতে সক্ষম হননি। তবে ড্রোন ফুটেজ এবং এআই অ্যালগরিদমের সাহায্যে গবেষকরা শীঘ্রই তাদের অর্থ খুঁজে বের করবেন। এটি নীল তিমির জনসংখ্যার ওপর জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবও প্রকাশ করতে পারে।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর