• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৩৫ পূর্বাহ্ন
Notice
We are Updating Our Website

ইরানে কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম বাংলাদেশি হাফেজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
ইরানে কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম বাংলাদেশি হাফেজ-দৈনিক এইদিন
ইরানে কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম বাংলাদেশি হাফেজ-দৈনিক এইদিন

ইরানের রাজধানী তেহরানে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করেছে বাংলাদেশি কিশোর হাফেজ বশির আহমাদ। প্রতিযোগিতায় ৩০ পারা কোরআন গ্রুপে ১১০ দেশের প্রতিযোগীদের মধ্যে বশির প্রথম হয়েছে। মাত্র পাঁচ মাসে হিফজ শেষ করেছিল বশির। সে ঢাকার মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসার শিক্ষার্থী।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করে দেশটির রাষ্ট্রীয় আয়োজক কমিটি। গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাফেজ বশির আহমাদের শিক্ষক ও দেশের স্বনামধন্য হিফজ-শিক্ষক শায়খ নেছার আহমাদ আন নাছিরি।

প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় হয়েছেন ইরানের সাঈদ মোহাম্মদ সাদেক এবং তৃতীয় হয়েছেন নাইজেরিয়া আব্দুলাহি আব্দুলাহি গারায়ী। এর ১০ দিন আগে আলজেরিয়ার রাজধানী আলজিয়ার্সে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় তৃতীয় হয়েছিল বশির। ২০২২ সালে হুফফাজুল কোরআন ফাউন্ডেশনের প্রতিযোগিতায় বশির প্রথম স্থান অর্জন করেছিল।

হাফেজ বশির আহমাদ হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার বেগুনাই গ্রামের মো.আব্দুর রশিদ চৌধুরী ও বুশরা চৌধুরী দম্পতির ছেলে।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দেশে ফেরেন বিশ্বজয়ী হাফেজ বশির আহমাদ। সকাল ৮টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন তিনি। এ সময় তাকে ঢাকার মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসা ও কোরআনপ্রেমীদের পক্ষ থেকে তাকে সংবর্ধনা জানানো হয়।

তেহরানে ১৯৮২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়া, বাংলাদেশ, ভারত, ইরাক, সিরিয়া, গিনি, আলজেরিয়া ও লিবিয়া এই ১২ দেশের প্রতিযোগীদের নিয়ে তেহরান হোসেইনিয়েহ এরশাদে আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতা শুরু হয়।

বর্তমানে এর পরিধি বেড়ে বিভিন্ন দেশের কোরআন তেলাওয়াতকারীদের সপ্তাহব্যাপী অংশগ্রহণে কোরআন তেলাওয়াতের এই আন্তর্জাতিক আয়োজন করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর