• মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন

আড়াই ঘণ্টায় শেষ ঢাকা-কক্সবাজার ট্রেনের আগাম টিকিট

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২৩

ঢাকা-কক্সবাজার ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হওয়ার মাত্র আড়াই ঘণ্টায় তিন দিনের সব আগাম টিকিট বিক্রি শেষ হয়েছে। প্রথমদিন দেওয়া হয় ১, ২ ও ৩ ডিসেম্বরের টিকিট। প্রথমদিন দেয়া হয় ১, ২ ও ৩ ডিসেম্বরের টিকিট। সকাল ১০টার মধ্যে সব টিকিট বিক্রি হয়ে যায়। প্রায় আড়াই হাজার টিকিটের ৯০ শতাংশই অনলাইনে বিক্রি হয়।

বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) সকাল ৮টা থেকে একযোগে অনলাইন ও কাউন্টারে এ টিকিট বিক্রি শুরু হয়।

আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিনি আরও বলেন, সারা দেশের মানুষ অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কিনছেন। ঢাকা থেকে কক্সবাজার রুটের সব টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। কক্সবাজার থেকে ঢাকা রুটের কিছু টিকিট এখনো বাকি আছে। আগামী ১ ডিসেম্বর দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে কক্সবাজার থেকে প্রথম ট্রেন ছাড়বে বলেও জানান তিনি।

রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, বহুল প্রতীক্ষিত ‘কক্সবাজার এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি ১৩ কোচের বগি নিয়ে আগামী ১ ডিসেম্বর যাত্রা শুরু করবে। এই ট্রেনের মোট টিকিটের সংখ্যা ৭০০টি। শোভন চেয়ারের দাম ধরা হয়েছে ৬৯৫ টাকা। এসি চেয়ার টিকিটের দাম হবে ১ হাজার ৩২৫ টাকা। তবে শুরুতেই কেবিন ও এসি বার্থের সুবিধা থাকছে না। পরবর্তীতে এসব সুবিধা সংযুক্ত হলে সমন্বয় করে টিকিটের দাম নির্ধারণ করা হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, গত ১১ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘কক্সবাজার এক্সপ্রেস’ এর উদ্বোধন করেন। রাজধানী ঢাকা থেকে এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হবে ১ ডিসেম্বর। এ দিন রাত সাড়ে ১০টায় কমলাপুর স্টেশন থেকে যাত্রা করবে ট্রেনটি। সকাল ৬টায় এটির কক্সবাজার পৌঁছানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

রেলওয়ে সূত্র জানিয়েছে, ঢাকা থেকে কক্সবাজারের দূরত্ব ৩৪৬ কিলোমিটার। কক্সবাজার এক্সপ্রেস ট্রেনে শোভন চেয়ারের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ভ্যাটসহ ৬৯৫ টাকা, এসি চেয়ারের ভাড়া এক হাজার ৩২৫ টাকা, এসি সিটের ভাড়া এক হাজার ৫৯০ টাকা এবং এসি বার্থের (ঘুমিয়ে যাওয়ার আসন) ভাড়া দুই হাজার ৩৮০ টাকা।

তবে ঢাকা থেকে সোমবার এবং কক্সবাজার থেকে মঙ্গলবার সাপ্তাহিক বন্ধ থাকবে ট্রেনটি। এই দুই দিন একমুখী গন্তব্যে চলাচল করতে পারবেন যাত্রীরা।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর