• মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৫:২০ পূর্বাহ্ন

নির্বাচনে মাঠে থাকবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাড়ে সাত লাখ সদস্য

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০২৩
নয়াপল্টনে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন
নয়াপল্টনে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী পাঁচটি বাহিনীর মোট সাত লাখ ৪৭ হাজার ৩২২ জন সদস্য মোতায়েন থাকবে। এসব সদস্যকে ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তা এবং ভোটারদের যাতায়াতের পথে মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসাবে নিয়োগ দেওয়া হবে।

এ সব তথ্য জানিয়েছেন- নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ। সোমবার (২০ নভেম্বর) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, ‘কারা নির্বাচনে দায়িত্ব পালন করবেন, সেই বিষয়ে আজ আইনশৃঙ্খলার বিভিন্ন বাহিনীর সঙ্গে নিয়মিত বৈঠক হয়েছে। এখানে বাজেট কখনও চূড়ান্ত হয় না। একটা সম্ভাব্য বাজেট নিয়ে আলোচনা হয়। প্রতিজন ও প্রতিদিন হিসেবে তারা (আইনশৃঙ্খলা বাহিনী) একটা বাজেট দেয়। তবে, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদিত একটা হার (পরিমাণ) আছে, সে অনুযায়ী কত সংখ্যক নিয়োগ হবে, তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তারা কিছু অগ্রিম বরাদ্দ চেয়েছে। বরাদ্দ প্রাপ্তির সাপেক্ষে আমরা কতটুকু দিতে পারব, সেই বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।’

সশস্ত্র বাহিনীকে কোন পদ্ধতিতে কীভাবে কতদিনের জন্য মাঠে নামানো হবে সে বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত জানায়নি কমিশন। ইসি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

কতজন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দায়িত্ব পালন করবেন এবং সব মিলিয়ে বাজেট কত, এমন প্রশ্নে ইসির অতিরিক্ত সচিব বলেন, সব মিলিয়ে বাজেট বলা যাবে না। কোন বাহিনীর সংখ্যা কত, সেটা বলতে পারি। আনসার পাঁচ লাখ ১৬ হাজার, কোস্টগার্ড থাকবে দুই হাজার ৩৫০ জন, বিজিবি থাকবে ৪৬ হাজার ৮৭৬ জন এবং পুলিশ ও র‌্যাব থাকবে এক লাখ ৮২ হাজার ৯১ জন। আর সেনাবাহিনীর বিষয়ে কমিশন সিদ্ধান্ত নেবে।’

কোন বাহিনী কতদিন থাকবে—প্রশ্নে অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, ‘এ বিষয়ে পরে পরিপত্র জারি হলে সে অনুযায়ী সিদ্ধান্ত হবে। তারা যেভাবে দায়িত্ব পাবেন, সে অনুযায়ী বরাদ্দ হবে।’


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর