• মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন

বিয়ের চেয়ে প্রেমে আগ্রহ, না হলে ‘সিঙ্গেলই’ ভালো

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
বিয়ের চেয়ে প্রেমে আগ্রহ, না হলে 'সিঙ্গেলই' ভালো
বিয়ের চেয়ে প্রেমে আগ্রহ, না হলে 'সিঙ্গেলই' ভালো

‘কিক্সি উৎসব’ মানেই যেন চীনে বিয়ের উৎসব। বাংলাদেশের শীতকালের মতো দেশটির মানুষ ওই সময়ে মুখিয়ে থাকেন বিয়ের জন্য। এই উৎসবের সময় গাঁটছড়া বাঁধে বিপুল সংখ্যক চীনা যুগল। চীনা বর্ষপঞ্জিকার সপ্তম মাসের সপ্তম দিনটিতে উদ্‌যাপিত হয় কিক্সি উৎসব।

চলতি বছরের গত ২২ আগস্ট অনুষ্ঠিত হয় কিক্সি উৎসব। দেশটির সিচুয়ান প্রদেশের মিয়ানইয়াং শহরের একটি বিয়ে রেজিস্ট্রেশন অফিস দিনটি রোমান্টিকভাবে উপস্থাপন করতে আগেভাগেই প্রস্তুতি নিয়েছিল। কিন্তু খুব কম যুগলই বিয়ে করতে হাজির হয়েছিল অনুষ্ঠানে।

ফলে অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচার একপর্যায়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়। খালি পড়ে থাকা বিশাল বিয়ে রেজিস্ট্রেশন হলের পরিবর্তে দেখানো হয় শহরের সৌন্দর্য। চীনা সোশ্যাল মিডিয়ায় বিয়ে রেজিস্ট্রেশন হল খালি থাকার ঘটনা ট্রেন্ডিং হয়ে ওঠে। দেশটিতে বিয়ের হার কমে যাওয়ার স্পষ্ট উদাহরণ হিসেবে দেখা হচ্ছে এটিকে।

সরকারি পরিসংখ্যান বলছে, কর্তৃপক্ষের নানা উদ্যোগ সত্ত্বেও চীনে ক্রমাগত কমছে বিয়ের হার। ২০১৩ সালে দেশটিতে বিয়ে করেছিলেন প্রায় ১ কোটি ৩৫ লাখ মানুষ। কমতে কমতে গত বছর তা নেমে এসেছে মাত্র ৬৮ লাখে। শুধু তাই নয়, মাত্রাতিরিক্ত হারে বেড়েছে বিচ্ছেদের সংখ্যাও।

ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব সিঙ্গাপুরের গবেষক মু ঝেং-এর মতে, চীনে তরুণদের মধ্যে বিয়ে করার পরিবর্তে এখন সিঙ্গেল থাকা অথবা প্রেম করার দিকেই আগ্রহ বেশি। কনে খোঁজার পরিবর্তে তারা ডেটিংয়ে বেশি ঝুঁকছেন।

অনলাইন-অফলাইন বিভিন্ন মাধ্যমে ডেটিং করছেন চীনা তরুণরা। বন্ধুদের সাহায্যে, ফোন নাম্বার দিয়ে, সোশ্যাল মিডিয়া, ডেটিং অ্যাপ কিংবা ম্যাচমেকিং প্ল্যাটফর্মগুলোর মাধ্যমে সঙ্গী জোগাড় করছেন তারা। তবে এতেও সবার আগ্রহ সমান নয়। উপযুক্ত সঙ্গী না মেলায় অনেকেই একা থাকার পথ বেছে নিচ্ছেন।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর