• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৩৭ পূর্বাহ্ন
Notice
We are Updating Our Website

দূষিত তেলাপিয়া খেয়ে চার হাত-পা হারালেন নারী

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
দূষিত তেলাপিয়া খেয়ে চার হাত-পা হারালেন নারী
দূষিত তেলাপিয়া খেয়ে চার হাত-পা হারালেন নারী

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভুক্তভোগী নারীর নাম লরা বারাজাস (৪০)। তার বন্ধুরা জানিয়েছেন, লরা প্রাণঘাতী ব্যাকটেরিয়ায় সংক্রমনিত একটি তেলাপিয়া মাছ ঠিকমত সিদ্ধ না করে খেয়েছেন। এরপরেই তার এ পরিণতি।

লরার বন্ধুরা জানায়, এ তেলাপিয়া মাছ খাওয়ার পর তিনি গুরুতর অসুস্থ হন। তাকে বাঁচানোর জন্য তার চার অঙ্গ কেটে ফেলা হয়েছে। একমাস হাঁসপাতালে থাকার পর গত বৃহস্পতিবার লরার জীবন রক্ষায় অস্ত্রোপচার করা হয়।

লরার বন্ধু আন্না মেসিনা ক্রনকে বলেছেন, এ ঘটনায় তারা অনেক মর্মাহত। এটি ভয়াবহ। এটি আমাদের সঙ্গেও হতে পারতো। মেসিনা আরও বলেছেন, লরার ছয় বছরের ছেলে আছে। এই মাছ খাওয়ার পর সেও অসুস্থ হয়ে পরে। সান জোসের এক বাজার থেকে এই মাছ কিনেছিল লরা। এরপর নিজেই বাড়িতে তা রান্না করে।

মেসিনা বলেছেন, এ মাছ খাওয়ার পর লরার আঙ্গুল, পা কালো হয়ে যায়, তার ঠোঁটের নিচের অংশও কালো হয়ে যায়। তার কিডনি কাজ করছিল না এবং সে প্রায় মারা যাচ্ছিলেন।

মেসিনা জানান, লরা ভিব্রিও ভালনিফিকাস ব্যাকটেরিয়ায় সংক্রমিত হয়েছিলেন। এই প্রাণঘাতী ব্যাকটেরিয়া কাঁচা সামুদ্রিক খাবার এবং সমুদ্রের পানিতে পাওয়া যায়।

দেশটির সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ নাতাশা স্পোটিসউড ক্রনকে বলেন, আপনি এই ব্যাকটেরিয়ায় সঙ্গে সংক্রমিত কিছু খেলে বা আপনার শরীরের কাটা জায়গা বা ট্যাটু করা স্থানের সংস্পর্শে এলে সংক্রমিত হতে পারেন।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর