• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২৮ পূর্বাহ্ন
Notice
We are Updating Our Website

পুরুষের স্তন বড় হওয়ার কারণ ও করণীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
পুরুষের স্তন বড় হওয়ার কারণ ও করণীয়
পুরুষের স্তন বড় হওয়ার কারণ ও করণীয়

পুরুষের স্তন বড় হয়ে যাওয়া একটা বড় সমস্যা। যেকোনো বয়সেই এই সমস্যা হতে পারে। যার এই সমস্যা নেই তার কাছে বিষয়টা হাস্যকর মনে হলেও, ভুক্তভোগীর কাছে এটি বিব্রতকর। চিকিৎসা-বিজ্ঞানের ভাষায় এই সমস্যাকে বলা হয় ‘গাইনেকোমাস্টিয়া’। এই সমস্যার আরেক ধরনের নাম ‘সুডো-গাইনেকোমাস্টিয়া’।

পুরুষদের সাধারণত বড় স্তন থাকে না। বুকের সঙ্গে ত্বক আঁটোসাঁটো হয়ে থাকে। কিন্তু তার পরও কারো কারো বুকে বেশ কিছুটা মেদ জমে। শুধু কি মোটা হচ্ছেন বলেই বুকে মেদ জমছে? আদতে তা নয়। শরীরের ভিতরে কিছু রোগ বাসা বাঁধলেও এমন সমস্যা দেখা দিতে পারে।

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পঙ্কজ পাতিলের কথায়, হরমোনের ভারসাম্য শরীরে ঠিক না থাকলে বুকের কাছে থাকা কলাকোষের আকার বাড়তে থাকে। শরীরে টেস্টোস্টেরন কমে গেলে বা ইস্ট্রোজেন বেড়ে গেলে এই সমস্যা দেখা দেয়।

অনেক সময় ওজন বেড়ে যাওয়া ছাড়াও কিডনির সমস্যা এর জন্য দায়ী। কিডনি ঠিকমতো কাজ না করলে বুকের স্তনবৃন্তের চারপাশে মেদ জমতে থাকে। কলাকোষের আকার বাড়তে শুরু করে।

এর পাশাপাশি লিভারের সমস্যা থেকেও স্তনের আকার বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। দেখা গিয়েছে, ২১ থেকে ৪০ বছর বয়সের পুরুষরাই এই সমস্যায় বেশি ভোগেন। বর্তমানে ৭০ শতাংশ পুরুষদেরই এই সমস্যা রয়েছে।

স্তনের আকার বাড়লে কী কী সমস্যা হতে পারে? চিকিৎসক পঙ্কজ পাতিলের মতে, নিজের উপর বিশ্বাস কমে যাওয়া থেকে মনখারাপের হার বেড়ে যেতে পারে। এমনকি মানসিক চাপও অনেকটা বেড়ে যায় বলে জানাচ্ছেন চিকিৎসক।

স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে এই সমস্যা মোকাবিলা করার কয়েকটি পন্থা এখানে দেওয়া হলো-

ব্যায়াম: ভারোত্তলন প্রশিক্ষণ হতে পারে এক্ষেত্রে কার্যকর ব্যায়াম। কারণ এই পদ্ধতিতে অনেকগুলো মাংসপেশি একসঙ্গে প্রভাবিত হয়। এমন ব্যায়ামের একটি উৎকৃষ্ট উদাহরণ হলো বুকডন দেওয়া। বুকডন দেওয়ার সময় হাত, পিঠ, ঘাড় এবং মূল শরীরের উপর চাপ পড়ে। এই ব্যায়ামের সময় হাত যত ছড়ানো থাকবে, বুকের পেশির উপর ততই চাপ পড়বে।

খাদ্যাভ্যাস: স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস শরীরের ওজন কমাতে কতটা জরুরি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আর এই কাজে প্রথম পদক্ষেপ হবে লক্ষ্যস্থির করা এবং প্রতিদিন সেই লক্ষ্য অর্জনের জন্য কাজ করে যাওয়া। অনেকেই বেহিসেবি খাওয়াদাওয়া করেন, তাই খাদ্যাভ্যাস নিয়ন্ত্রণে আনা এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ।

হরমোন পরীক্ষা: এই সমস্যা সমাধানের জন্য যেকোনো পদক্ষেপ নেয়ার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া অত্যন্ত জরুরি। আলোচনা করতে হবে সমস্যাগুলো এবং নিরাপদ সমাধানগুলো সম্পর্কে। হরমোনের মাত্রা পরীক্ষা করানো এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ।

ভারোত্তলনের সঙ্গে শক্তি বাড়ানোর ব্যায়াম: পেশি গড়তে চাইতে ভারোত্তলন ব্যায়ামের চাইতে ভালো উপায় নেই বললেই চলে। পেশি হচ্ছে শক্তি খরচের কোষ। তাই যত বেশি পেশি ক্যালরি খরচও তত বেশি। ‘চেস্ট প্রেস’ এবং দড়ি লাফানো হল এক্ষেত্রে আদর্শ।

শুধু বুকের পেশির ওপর মনোযোগ দিলেই চলবে না, পেশি গড়তে হবে পুরো শরীরেই। এতে ‘টেস্টোস্টেরন’ হরমোনের মাত্রা বাড়বে। আর এই হরমোনের কমতিই অনেকসময় পুরুষের স্তন বৃদ্ধি পাওয়া জন্য দায়ী।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর