• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১০:২২ পূর্বাহ্ন
Notice
We are Updating Our Website

অস্ত্র মামলায় আরাভ খানের ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : মঙ্গলবার, ৯ মে, ২০২৩
অস্ত্র মামলায় আরাভ খানের ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ড
অস্ত্র মামলায় আরাভ খানের ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ড

বর্তমান সময়ের আলোচিত দুবাইয়ের স্বর্ণ ব্যবসায়ী মোহাম্মদ রবিউল ইসলাম ওরফে আরাভ খানকে অস্ত্র আইনের একটি মামলায় ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার ঢাকার ১৪ নম্বর মেট্রো বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মুর্শিদ আহাম্মদ এ রায় ঘোষণা করেন।

রায়ে ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ডের পাশাপাশি আসামির ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

এর আগে গত ৭ মে রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায়ের তারিখ ঠিক করেন আদালত। মামলায় আরাভ খান পলাতক রয়েছেন। এ কারণে তার পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না।

গত ২৮ মার্চ মামলাটিতে সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। ২০ জন সাক্ষীর মধ্যে ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। পলাতক থাকায় আরাভ খান নিজেকে নির্দোষ দাবি করতে পারেননি।

মামলা থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৮ জানুয়ারি আরাভ খান তার শ্বশুর সেকেন্দার আলীকে ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় করতে মগবাজারের বাসায় যান। একটি গুলিভর্তি রিভলবারসহ শ্বশুরের বাসার সামনে থেকে তিনি গ্রেপ্তার হন।

এ ঘটনায় ওইদিনই আরাভের বিরুদ্ধে রমনা মডেল থানায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করেন ডিবি পশ্চিমের গাড়ি চুরি প্রতিরোধ ও উদ্ধার টিমের তৎকালীন উপ-পরিদর্শক সুজন কুমার কুণ্ডু। পরবর্তী সময়ে তিনি জামিনে পলাতক হন।

মামলাটি তদন্ত করে ২০১৫ সালের ১ মার্চ আরাভ খানের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির উপ-পরিদর্শক শেখ হাসান মুহাম্মদ মোস্তফা সারোয়ার।

একই বছরের ১০ মে আরাভের বিরুদ্ধে চার্জগঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। এই মামলায় ২০১৮ সালের ১৪ মার্চ জামিন পান আরাভ। এরপর জামিনে গিয়ে পলাতক থাকায় ২০১৮ সালের ২৪ অক্টোবর আরাভের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

উল্লেখ্য, আরাভ খান পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) পরিদর্শক মামুন ইমরান খান হত্যা মামলা প্রধান আসামি। সেই মামলাটি ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতে বিচারাধীন।

২০১৮ সালের ৯ জুলাই গাজীপুরের জঙ্গল থেকে মামুন ইমরান খানের লাশ উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় মামুনের ভাই জাহাঙ্গীর আলম খান বাদী হয়ে রাজধানীর বনানী থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

 


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর