বৈরুত বিস্ফোরণে লেবাননের সাবেক প্রধানমন্ত্রী দিয়াব অভিযুক্ত

২০২০ সালের বৈরুত বন্দর বিস্ফোরণের মামলায় লেবাননের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব এবং দুই সাবেক মন্ত্রীকে সম্ভাব্য অভিপ্রায়ে হত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত করেছেন তদন্তকারী বিচারক। এছাড়াও লেবাননের পাবলিক প্রসিকিউটর এবং দেশটির অভ্যন্তরীন গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান মেজর জেনারেল আব্বাস ইব্রাহিমকেও বিস্ফোরণে জড়িত থাকার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়েছে, যেখানে কমপক্ষে ২১৮ জন নিহত হয়েছিল।

মঙ্গলবার বিচার বিভাগীয় সূত্র জানিয়েছে, শীর্ষ নিরাপত্তা কর্মকর্তা, দুই সাবেক মন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রী দিয়াবসহ ১৫ জনকে ফেব্রুয়ারিতে জিজ্ঞাসাবাদের দিন ধার্য করা হয়েছে। এই মামলার অনান্য অভিযুক্তদের মধ্যে রয়েছেন, দেশটির অন্য একটি নিরাপত্তা সংস্থার প্রধান মেজর জেনারেল টনি সালিবার, সাবেক সেনা কমান্ডার জিন কাহওয়াজি।

তদন্তকারী বিচারক তারেক বিতার, যিনি অপ্রত্যাশিতভাবে একটি তদন্ত পুনরায় শুরু করেছেন যা উচ্চ-পর্যায়ের রাজনৈতিক প্রতিরোধের কারণে বন্ধ হয়ে যায়। বিতার বিস্ফোরণের একটি ফরাসি তদন্তের অংশ হিসাবে গত সপ্তাহে বৈরুত সফররত ফরাসি বিচারকদের সাথে দেখা করেছিলেন। তদন্ত স্থগিত থাকায় তিনি তাদের সাথে নথি শেয়ার করতে পারেননি।

এদিকে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে তারা সকলেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ৪ আগস্ট লেবাননের রাজধানী বৈরুতের প্রধান বন্দরে। কয়েকশ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের কারণে বিস্ফোরণটি ঘটেছিল। যা ২০১৩ সাল থেকে অনিরাপদ অবস্থায় বন্দরে সংরক্ষণ করা হয়েছিল। তবে এর আগে, কোনও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে দায়ী করা হয়নি।

সূত্র: রয়টার্স

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + 5 =