মেসি-নেইমারের কড়া সমালোচনায় ফরাসি মিডিয়া

যত দোষ মেসি-নেইমারের! বিশ্বকাপের পর আরও চড়াও হয়ে গেল ফ্রান্সের মিডিয়াগুলো। পান থেকে চুন খসলেই দু’জনকে নিয়ে সমালোচনায় মাতে। এই যেমন রেঁনের বিপক্ষে হারের পর দেশটির একাধিক দৈনিক মেসি-নেইমারের মুণ্ডপাত করেছে। অথচ কিলিয়ান এমবাপ্পেকে নিয়ে টু শব্দও নেই।

আরএমসি বলছে, মৌসুমের প্রথমে তিনি (মেসি) তো দারুণ খেলেছিলেন। কারণ, তখন বিশ্বকাপের প্রস্তুতি তিনি সেরেছেন। ট্রেনিংও করেছেন ঠিকঠাক। এখন আর বিশ্বকাপ নেই।’ নেইমারকে নিয়ে এল ইকুইপে বলছে, তাঁর কাছে এমন হতশ্রী পারফরম্যান্স আশা করা যায় না। এত দিনেও তিনি শোধরালেন না।’

কেবল এই দুই গণমাধ্যমই নয়, অনেকেই তাঁদের মিম বানিয়ে আবার নেট দুনিয়ায় নানা খোঁচামূলক কথা দিয়ে পোস্টার ছেড়েছে। হঠাৎ দু’জনের পেছনে ফ্রান্সের মিডিয়া সরব হলো কেন? উত্তরটা হয়তো এরই মধ্যে অনুমান করা যাচ্ছে। বিশ্বকাপে মেসির বিপক্ষে লড়েছে ফ্রান্স। তাদের হৃদয় ভেঙে মেসিরা করেছিলেন উৎসব। একটু তো ক্ষত লেগে আছেই। সেই ক্ষত বোধ হয় এখনও দগদগে। তাই তো ফ্রান্সের সমর্থকরাও তাঁদের ওপর খানিকটা নারাজ।

এমনিতেই নেইমারের প্রতি পিএসজির সমর্থকদের পুরোনো ক্ষোভ জমা। সেই ২০১৭ সালে বার্সা থেকে ২২২ মিলিয়ন ইউরোতে কিনেছিল পিএসজি। এত অর্থ তাঁর পেছনে ঢেলেও একটা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে পারেনি ফরাসি ক্লাবটি। ফাইনালে উঠেও ফিরেছে খালি হাতে। এর পর মাঠের বাইরের নানা বিতর্ক এবং বারবার চোটে পড়ায়ও অসন্তুষ্ট ক্লাবটির কর্তারা। সে জন্য নাকি তাঁকে বেচে দিতেও চাইছে। এত দিন দরদাম নিয়ে দোটানায় ছিল পিএসজি।

আপাতত সেই বাধাও কেটে গেল। দাম অল্প পেলেও নেইমারকে আর রাখতে চায় না লিগ ওয়ানের ক্লাবটি। এদিকে মেসির বেলায় তার উল্টো। বিশ্বকাপ জেতার পর তাঁর ওপর খুশি পিএসজির মালিক খেলাইপিও। খুব করে চাইছেন, তাঁর সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করতে। তবে এখনও মেসির গ্রিন সিগন্যাল পায়নি পিএসজি। এদিকে গুঞ্জন আছে, মেসি সৌদি ক্লাবে যোগ দিতে পারেন।

তাঁকে মোটা অঙ্কের প্রস্তাব পাঠিয়েছে আল হিলাল। বিশেষ করে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো আল নাসরে যাওয়ার পর ওই ক্লাবের রাইভাল আল হিলাল চাইছে মেসিকে। যাতে মেসি-রোনালদো দ্বৈরথটা আবার জমে। সেই সঙ্গে ২০৩০ বিশ্বকাপের আয়োজক হওয়ার স্বাদও পূরণ হয়। শুধু আল হিলাল নয়, আল ইত্তিহাদও মেসিকে চায়। এমনটা হলে পিএসজি দুই কূলই হারাতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six − three =