• মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন

রংপুর সিটির মেয়র জাতীয় পার্টির মোস্তফা

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২২

দ্বিতীয়বারের মতো রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। লাঙল প্রতীক নিয়ে তিনি ১ লাখ ৪৬ হাজার ৭৯৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আমিরুজ্জামান পিয়াল। তিনি হাতপাখা প্রতীকে পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৮৯২ ভোট।

আওয়ামী লীগের হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া (নৌকা প্রতীকে) পেয়েছেন ২২ হাজার ৩০৬ ভোট। স্বতন্ত্র প্রার্থী লতিফুর রহমান মিলন (হাতি) পেয়েছেন ৩৩ হাজার ৮০০ ভোট।
মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আব্দুল বাতেন এসব তথ্য জানিয়েছেন।

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় শুরু হয়। নির্দিষ্ট সময়ে অধিকাংশ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শেষ হয়। তবে কিছু কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিত থাকায় ভোটগ্রহণ চলে রাত ৮টা পর্যন্ত। নগরীর ২২৯টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ হয়। সকাল থেকে ইভিএমে ভোট দিতে বিলম্ব হয়েছিল বলে জানিয়েছেন ভোটাররা। নির্দিষ্ট সময়ের পরও কিছু কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনে ৯ জন মেয়র প্রার্থী, ১৮৩ জন কাউন্সিলর এবং ৬৮ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন।

মেয়র পদের প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, জাতীয় পার্টির (জাপা) মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা (বর্তমান মেয়র), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী লতিফুর রহমান মিলন (দল থেকে বহিষ্কৃত), ইসলামী আন্দোলনের আমিরুজ্জামান পিয়াল, জাসদের শফিউর রহমান, জাকের পার্টির আশরাফুল ইসলাম খোকন, বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির আবু রায়হান, খেলাফত মজলিসের তৌহিদুর রহমান এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মেহেদী হাসান বনি।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরও খবর