নয়াপল্টনে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে নিহত ১

নয়াপল্টনে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে নিহত ১

রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনায় মকবুল নামে এক তরুণ নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশসহ আহত ৩০ জন।

বুধবার বিকেলে মুমূর্ষু অবস্থায় মকবুলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিকেল ৪টায় ওই যুবককে মৃত ঘোষণা করেন।

তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক মুস্তাফিজুর রহমান রুমি জানান, বিএনপি পার্টি অফিসের সামনে রাস্তায় শটগানের গুলিতে আহত হয়ে পড়েছিলেন ওই যুবক। তখন তাকে কয়েকজন মিলে ধরাধরি করে হাসপাতালে নিয়ে যান আসেন তারা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকাল থেকেই নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ের সামনে দলটির নেতা-কর্মীরা জড়ো হতে থাকেন। একপর্যায়ে জমায়েত বড় হয়ে রাস্তার এক পাশ বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়। পুলিশ তাদের সরিয়ে দিতে গেলে দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া শুরু হয়। সংঘর্ষের একপর্যায়ে পুলিশ রবার বুলেট ও টিয়ার শেল ছুড়ে। এসময় বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে এবং লাঠিছোটা নিয়ে বিক্ষোভ করে।

এদিকে সকাল থেকেই সতর্ক অবস্থানে ছিল আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। প্রিজন ভ্যান ও জলকামানও প্রস্তুত রয়েছে।

পুলিশ জানায়, বিএনপির নেতাকর্মীরা রাস্তা দখল করে রাখে। এতে করে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যা। পুলিশ তাদের সরে যেতে বললে হামলা চালায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 2 =