একই হোটেলের সামনে শাকিব-বুবলীর ছবি

একই হোটেলের সামনে শাকিব-বুবলীর ছবি !

গুঞ্জন না সত্যি- তা স্পষ্ট হতে এখন সময়ের অপেক্ষা। তবে কিছু ছবি ঘিরে রহস্যের জটলা বেঁধেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। গতকাল মঙ্গলবার থেকে চিত্রনায়িকা বুবলীর প্রকাশিত ‘বেবি বাম্প’র ছবি ঘিরে শোবিজ পাড়া উত্তাল। ছবিটি প্রকাশ্যে আসার পর আর বুবলীর বক্তব্য যেন মিল খুঁজে পাচ্ছে নেটিজেনরা। সবাই ঢাকাই সিনেমার শীর্ষ নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে তার যোগসূত্র খুঁজে পেয়েছে।

গতকাল বুবলী তার ফেসবুকে বেবি বাম্পের ছবি প্রকাশ করে হ্যাশট্যাগ দিয়ে স্মরণ করেছেন তার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জীবনকে। ক্যাপশন তিনি লিখেছেন, ‘মি উইথ মাই লাইফ।’ গত বছর শেষ দিকে মার্কিন মুলুকে গিয়েছেন শাকিব খান ও বুবলী। যুক্তরাষ্ট্রে একই হোটেলের সামনে দাঁড়িয়ে দুজনই ছবি প্রকাশ করেন। তবে ছবিগুলো ছিল তাদের আলাদা। এখন দুইয়ে-দুইয়ে চার মেলাচ্ছেন ভক্তরা। বিশেষ করে ২০২০ সালের পুরো সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্রে ছিলেন, তখনই মা হয়েছেন তিনি! গুঞ্জন আছে, শাকিব খান ও বুবলী বিয়ে করেছেন। তাদের ঘরেই সেসময় সন্তান এসেছে।

এর আগে, ২০১৭ সালে বুবলী তার ফেসবুকে একটি ছবি প্রকাশ করেন। আর ক্যাপশনে লিখেছিলেন, ‘ফ্যামিলি টাইম’। সেই ছবিতে বুবলী বোন ও দুলাভাইয়ের সঙ্গে বসে আছেন শাকিব খান। এখন নেটিজেনদের প্রশ্ন; শাকিব-বুবলীর সম্পর্কের শুরুটা কি সেখান থেকেই।

ঠিক ওই সময়ই উধাও হয়ে যাওয়ার ১০ মাস পর ছেলেকে নিয়ে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন অপু বিশ্বাস। আর কাঁদতে কাঁদকে জানান, আব্রাম খান জয়ের বাবা শাকিব খান। সেসময় বুবলীর মুখে ছিল হাসি। আর অপুর চোখে ছিল জল।

গতকাল শাকিব-অপুর ছেলের জন্মদিন ছিল। আর ছেলে জয়কে নিয়ে একটি স্ট্যাটাসও দিয়েছে শাকিব। এর কিছুক্ষণ পরই বুবলী তার বেবি বাম্পের ছবি প্রকাশ করেন।

আর গতকাল রাতে জাকির হোসেন রাজুর ‘চাদর’ সিনেমার শুটিং সেটে কান্নাভরা কণ্ঠে বুবলী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি কখনও ব্যক্তিগত বিষয় সামনে আনতে চাই না। তারপরও সাংবাদিক এবং ভক্ত-দর্শকের জানার আগ্রহ থাকে, সেই জায়গা থেকে বলছি, কিছু ব্যাপার তো আছেই। বিষয়টা নিয়ে আপনারা আমার কাছে জানতে চাচ্ছেন, এজন্য ধন্যবাদ; কারণ ঘটনার পেছনে তো ঘটনা থাকে। চিত্রনাট্য যখন লেখা হয়, সেটার পেছনে কিন্তু আরেকটা চিত্রনাট্য থাকে। বিষয়টি নিয়ে সবার সঙ্গেই কথা বলব, কিন্তু আজ না অন্যদিন।’

বুবলী আরও বলেন, ‘সবার কাছে অনুরোধ, সবকিছু না জেনে কোনও নিউজ করবেন না প্লিজ। এটা খুব সেনসিটিভ এবং ইমোশনাল একটি ইস্যু। আর আমি একজন মুসলিম মানুষ, সবকিছুর পেছনে অবশ্যই ব্যাখ্যা আছে। সবকিছু অবশ্যই সুন্দর-শালীনভাবেই হয়েছে। আমি সেটা কয়েকদিনের মধ্যেই পরিষ্কার করব।’

এ সময় বুবলীর চোখেমুখে ছিল কান্নার ছাপ। আর সন্তান ও তার বাবা প্রসঙ্গে যখন প্রশ্ন করা হয় তখন কিছুটা নিরবও ছিলেন তিনি। আর গতকাল জয়ের জন্মদিনে ঘরোয়া আয়োজনে কেক কাটেন শাকিব-অপু। রাতেই সে ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করেছেন অপু। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘সুখী পরিবারের কিছু মুহূর্ত। আমাদের জন্য সবাই দোয়া করবেন।’ যে ছবিতে জয়কে কেক খাইয়ে দিচ্ছেন শাকিব-অপু। বুবলী চোখ যখন কান্না ভেজা, অপুর মুখে তখন হাসি।

যদিও নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে কখনও মুখ খোলেননি শাকিব-বুবলী। আর চিত্রনায়িকা বুবলী উধাও হয়ে প্রকাশ্যে আসার পর জানান, অনেক কিছুই আছে। সব কিছু তিনি সময় হলে প্রকাশ্যে আনবেন। এখন দেখার পালা গুঞ্জন আর নাটকের শেষটা কোথায়?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − 3 =