করতোয়া নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৯

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার করতোয়া নদীর আউলিয়াঘাটে নৌকাডুবির তৃতীয় দিনে (আজ) আরও ৯ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৫৯ জনে। তাদের পরিচয় এখনো জানা যায়নি।

আজ (মঙ্গলবার) সকালে মরদেহগুলো ভেসে ওঠে। পরে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে জানালে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়।

এর আগে পঞ্চগড়ের করতোয়া নদী ও দিনাজপুরের আত্রাই নদীর বিভিন্ন স্থান থেকে গতকাল (সোমবার) সারাদিনে ২৫টি লাশ উদ্ধার করা হয়। আর নিখোঁজের সংখ্যা ৪০ জনে নেমে এসেছে। জেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে স্থাপিত জরুরি তথ্য ও সহায়তা কেন্দ্রে (কন্ট্রোল রুম) অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দিপংকর রায় রাতে উদ্ধার অভিযান স্থগিত করে উপরোক্ত তথ্য দিয়েছেন।

এসময় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কর্তৃপক্ষ, বোদা ও দেবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। দ্বিতীয় দিনে উদ্ধারকৃত মৃতদেহের মধ্যে ২৫ জন নারী, ১৩ জন শিশু ও ১২ জন পুরুষ রয়েছে। স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষের সহযোগিতায় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের সদস্যরা এসব মৃতদেহ উদ্ধার করেছেন।

উদ্ধারকৃতদের নাম হচ্ছে- হাশেম আলী (৭০), শ্যামলী রানী (১৪), লক্ষ্মী রানী (২৫), অমল চন্দ্র (৩৫), শোভা রানী (২৭), দীপঙ্কর (৩), প্রিয়ন্ত (২.৫), রুপালি ওরফে খুকি রানী (৩৫), প্রমিলা রানী (৫৫), ধনবালা (৬০), সুনিতা রানী (৬০), ফাল্গুনী (৪৫), প্রমিলা দেবী, জ্যোতিশ চন্দ্র (৫৫), তারা রানী (২৫), সানেকা রানী (৬০), সফলতা রানী (৪০), বিলাশ চন্দ্র (৪৫), শ্যামলী রানী ওরফে শিমুলি (৩৫), উষশী (৮), তনুশ্রী (৫), শ্রেয়সী, প্রিয়ন্তী (৮), ব্রজেন্দ্র নাথ (৫৫), ঝর্ণা রানী (৪৫), দীপ বাবু (১০), সূচিত্রা (২২), কবিতা রানী (৫০), বেজ্যে বালা (৫০), দিপশিখা রানী (১০), সুব্রত (২), জগদীশ (৩৫), যতি মিম্রয় (১৫), গেন্দা রানী, কনিকা রানী, সুমিত্রা রানী, আদুরী (৫০), পুষ্পা রানী, প্রতিমা রানী (৫০), সূর্যনাথ বর্মন (১২), হরিকেশর বর্মন (৪৫), নিখিল চন্দ্র (৬০), সুশীল চন্দ্র (৬৫), যুথি রানী (০১), রাজমোহন অধিকারী (৬৫), রুপালী রানী (৩৮), প্রদীপ রায় (৩০), পারুল রানী (৩২), প্রতিমা রানী (৩৯), শৈলবালা। বাকিদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

কন্ট্রোল রুম, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা জানান, রাজশাহী, রংপুর ও কুড়িগ্রাম থেকে আসা ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল মঙ্গলবার সকাল ৬টায় দ্বিতীয় দিনের উদ্ধার অভিযান শুরু করে। নিখোঁজ স্বজনদের খুঁজে বের করতে ভোর থেকেই করতোয়ার দুপাড়ে মানুষ আসতে শুরু করে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে পুরো এলাকায় মানুষের ঢল নামে। তবে বিভিন্ন এলাকা থেকে দেখতে আসা মানুষের ভিড়ও ছিল লক্ষণীয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten + 15 =