ফতুল্লায় গ্যাস বিস্ফোরণ, একই পরিবারের দগ্ধ ৪

ফতুল্লায় গ্যাস বিস্ফোরণ, একই পরিবারের দগ্ধ ৪

নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলার ফতুল্লায় গ্যাসের লাইন লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে শিশুসহ একই পরিবারের চারজন দগ্ধ হয়েছেন। মঙ্গলবার ভোরে পাইলট স্কুল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন- রিকশাচালক ৪৫ বছর বয়সী আনোয়ার হোসেন, তার স্ত্রী ৪০ বছরের রুজিনা বেগম, বড় ছেলে ১৫ বছরের মোহাম্মদ রুহান ও ছোট ছেলে ১২ বছরের রুমান। তাদের রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন মাস্টার আলম হোসেন জানান, ভবনের পাশ দিয়ে যাওয়া গ্যাসের লাইন লিকেজ হয়ে নিচতলার একটি ঘরে গ্যাস জমাট বাঁধে। এ সময় দগ্ধদের মধ্যে কেউ বৈদ্যুতিক সুইচ অথবা ম্যাচ দিয়ে আগুন জ্বালাতে গেলে পুরো ঘরে আগুন ধরে যায়। এতে ঘরের ভেতরে থাকা একই পরিবারের চারজন দগ্ধ হন।

দগ্ধ রোজিনা বেগম বলেন, ভোরে হঠাৎ বাসার ভেতরে বিস্ফোরিত হয়। জেগে দেখি ঘরে আগুন জ্বলছে। আগুন মুহূর্তেই তাদের শরীরে লেগে যায়। ঘুমন্ত অবস্থা থেকে স্বামী-সন্তানদের তুলে দৌড়ে বাড়ির বাইরে বের হই। ততক্ষণে চারজনই ঝলসে যাই।

বার্ন ইনস্টিটিউটের আবাসিক চিকিৎসক ডা. এসএম আইয়ুব হোসেন জানান, রোজিনার শরীরের ১৪ শতাংশ, আনোয়ারের ১৭ শতাংশ ও রোহানের ৩৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। রুমানকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

14 − six =