২০ বছরে পদার্পণ করেছে বিপিও প্রতিষ্ঠান ‌‘ফিফোটেক’

নিউজ ডেস্ক: ২০ বছরে পর্দাপণ করলো আইটি খাতের শীর্ষ স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক মানের বিপিও প্রতিষ্ঠান ফিফোটেক। প্রতিষ্ঠানটি ২০০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হবার পর থেকে দেশের বিপিও খাতে অসামান্য অবদান রেখে চলেছে।

২০০৪ সালে অল্প জনবল নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও বর্তমানে ৪০০ অধিক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়ে কারওয়ান বাজারে অবস্থিত সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে সুবিশাল অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ধ অফিস থেকে সেবা দিয়ে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।‌ বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রায় ২৫টি দেশের ৭টির বেশি ভাষা নিয়ে চলছে প্রতিষ্ঠানটির কর্মযজ্ঞ।

প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার তৌহিদ হোসেনের দিক নির্দেশনায় এশিয়া, ইউরোপ, আমেরিকা, ভারত, দুবাইসহ বিশ্বের প্রায় ২০টি দেশের ৩০০‌‘র অধিক প্রতিষ্ঠানকে সেবা দিয়ে যাচ্ছে তারা।

জানা যায়, প্রতিষ্ঠানটির দুবাই অফিস থেকেও কাস্টমারদের সেবা দেয়া হচ্ছে সুদক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনবল নিয়ে। বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং এর পাশাপাশি ডাটা মাইনিং, ডাটা ম্যানেজমেন্ট, ডাটা এন্ট্রিসহ নানান ধরনের প্রযুক্তিগত সেবা দিয়ে যাচ্ছে ফিফোটেক।

প্রতিষ্ঠানটির সিইও এবং বাংলাদেশ কন্ট্রাক্ট সেন্টার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন’র সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার তৌহিদ হোসেন বলেন, প্রতিষ্ঠার কিছু সময় পর থেকে মাথায় চিন্তা ছিলো দেশের অভ্যন্তরীণ বিপিও খাতকে সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি বাজার সম্প্রসারণের দিকে। যদিও একটা সময় পর্যন্ত এই খাতটা অনেকটাই আন্তর্জাতিক বাজারের উপর নির্ভরশীল ছিলো। আমাদের বাংলাদেশ কন্ট্রাক্ট সেন্টার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ও ব্যবসায়িদের নিজ নিজ উদ্যোগ এবং বর্তমান সরকারের ইন্টারেনেট সহ নানান ধারাবাহিক সহযোগিতার ফলে দেশের বাজারও অনেক বড় হয়েছে এবং আমরা লক্ষ লক্ষ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের পাশাপাশি দেশের জাতীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখতে সক্ষম হচ্ছি।

তিনি বলেন, বর্তমানে চার শতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়ে আমাদের দেশী-বিদেশি গ্রাহকদের সেবা দিয়ে যাচ্ছি।‌ আমরা বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং এর পাশাপাশি কল সেন্টার সেবা, ডাটা মাইনিং, ডাটা ম্যানেজমেন্ট, ডাটা এন্ট্রিসহ নানান সেবা দিয়ে থাকি।

প্রযুক্তি জগতের এই উদ্যোক্তা ভালোবাসার টিম ফিফোটেক এবং সকল শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

2 + 16 =