অবশেষে খুলে যাচ্ছে নগদের অনুমোদনের সব পথ

ডেস্ক রিপোর্ট: সরকারি প্রতিষ্ঠান এবং ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানও এখন থেকে মোবাইল আর্থিক সেবা (এমএফএস) দিতে পারবে বলে নতুন বিধিমালা ২০২২ প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে খুলে যাচ্ছে নগদকে আর্থিক সেবা দেওয়ার অনুমোদনের সব পথ।

চলতি সপ্তাহের মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) ২০১৮ সালের বিধিমালা সংশোধন এবং সংযোজন করে নতুন বিধিমালা প্রকাশ করা হয়।

পূর্বের বিধিমালা অনুযায়ী, যারা এমএফএস সেবা দেবে, তাদের সহযোগী প্রতিষ্ঠান গঠন করতে হবে। সহযোগী প্রতিষ্ঠানের ৫১ শতাংশ শেয়ার থাকতে হবে মূল ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও সরকারি সংস্থার হাতে। এ সহযোগী প্রতিষ্ঠানের পরিশোধিত মূলধন থাকতে হবে ৪৫ কোটি টাকা।

এদিক থেকে নগদ হচ্ছে সরকারের ডাক বিভাগের একটি সেবা। সরকারি প্রতিষ্ঠানের অঙ্গসংগঠন হিসেবে স্থায়ী অনুমোদন থেকে বারবার বঞ্চিত হচ্ছিল নগদ। ২০২০ সালের এপ্রিল থেকে নগদ সাময়িক অনুমোদন নিয়ে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। নতুন বিধিমালা জারি হওয়ার ফলে নগদের স্থায়ী অনুমোদন পেতে আর কোনো বাধা থাকছে না।

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, নগদকে সুযোগ দিতেই বিধিমালা পরিবর্তন করা হয়েছে। পাশাপাশি বিধিমালায় আরও অনেক বিষয় যুক্ত করে আধুনিকায়ন করা হয়েছে। নগদ এখন নিয়মকানুন মেনে আবেদন করলেই লাইসেন্স পাবে।

এর আগে ২০১৯ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি নগদ তাদের পরীক্ষামূলক যাত্রা শুরু করে। একই বছর ২৬ মার্চ আনুষ্ঠানিকভাবে এ সেবার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এইদিন/অর্থনীতি/এএস

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

seventeen + 15 =