মাফলার প্যাঁচানোর সময় ছোঁয়া লাগায় সংঘর্ষ, আহত ৫০

মাফলার প্যাঁচানোর সময় ছোঁয়া লাগায় সংঘর্ষ, আহত ৫০

মাদারীপুরের রাজৈরে মাথায় মাফলার প্যাঁচানোর সময় সাবেক চেয়ারম্যানের মেয়ের গায়ে লাগাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছেন।

পরে তাদের রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে মাদারীপুর রাজৈর উপজেলা টেকেরহাট বন্দরের কাঠেরপোল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ১০টি দোকানপাট ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। পরে শর্টগানের গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে রাজৈর থানা পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার পূর্ব স্বরমঙ্গল গ্রামের রশিদ খালাসির (৬০) সঙ্গে মাথায় মাফলার প্যাঁচানোর সময় গায়ে ছোঁয়া লাগায় পাশের শংকরদীরপাড় গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মৃত লিয়াকত আলীর মেয়ে পপির (৩৫) কথা-কাটাকাটি হয়।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে পপির ভাইসহ শংকরদী গ্রামের কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে রশিদ খালাসি ও তার লোকজনের কথা-কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়।

এই খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে পূর্ব স্বরমঙ্গল ও শংকরদী গ্রামের শত শত লোক দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র ও ইটপাটকেল নিয়ে টেকেরহাট বন্দরের কাঠেরপোল এলাকায় নিম্ন কুমার নদের ওপর অবস্থিত সেতুর দুই পাশে অবস্থান নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়।

পরে তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। সংঘর্ষ চলাকালে প্রায় ১০টি দোকান ভাঙচুর করা হয়।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শেখ সাদিক জানান, দুই পক্ষের সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ১১৮ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ও ১১ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

eleven − 2 =