এই দিন

মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০   শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beta Version
   এই দিন
সর্বশেষ:
লেবাননের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ সিনহা হত্যা মামলা: ৪ আসামির ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন শারীরিক উপস্থিতিতে শুরু হতে যাচ্ছে হাইকোর্টের বিচারকাজ বাংলাদেশে আটকে পড়া নাগরিকদের ফেরানোর নির্দেশ ভারত সরকারের কোতোয়ালির ওসিসহ পাঁচ পুলিশের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা করোনায় আজ আরও ৩৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৯০৭ এবার অর্থ আত্মসাতের মামলায় রিমান্ডে শাহেদ সংবাদ সম্মেলন করে কেঁদে কেঁদে সন্তান হত্যার বিচার চাইলেন সিনহার মা শিপ্রার পর সিনহার সহযোগী সিফাতেরও জামিন মিলল
৪৯

৮৮ সালের বন্যায় ঘরছাড়া হননি, কিন্তু এবার ...

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩০ জুলাই ২০২০  

প্রতিদিনই বাড়ছে তুরাগ ও বংশী নদীর পানি। এতে প্লাবিত হয়েছে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার শ্রীফলতলী, ডালজোড়া ও সূত্রাপুর ইউপি। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে প্রায় সাত হাজার পরিবার। এছাড়া ঘরছাড়া হয়েছেন নিম্নবিত্ত অনেকেই।

কালিয়াকৈরের নওলা গ্রামের দিনমজুর সাঈদ মিয়া ৮৮ সালের ভয়াবহ বন্যাতেও ঘর ছাড়া হননি। কিন্তু এবার সব ছাপিয়ে পানি গ্রাস করেছে তার পৈত্রিক ভিটাকে। থই থই পানি, সাপ, বিচ্ছু, ইঁদুরে একাকার পুরো ঘর। তাই তো ঘরবাড়ি ছেড়ে ৩০ বছরের সংসার নিয়ে নৌকায় আশ্রয় নিয়েছেন সাঈদ মিয়া। তার স্ত্রী বলেন, সাপের ডরে তো ঘরেই যাইতে পারি না।

একদিকে করোনাভাইরাসের মহামারি, অন্যদিকে বন্যা। পাঁচ মাস ধরে কাজ নেই সাঈদ মিয়ার। পাঁচজনের সংসার চলছে সাঈদের গার্মেন্টসকর্মী মেয়ের আয়ে। কিন্তু পানির কারণে কাজে যেতে পারছেন না তিনিও।

সাঈদ মিয়া বলেন, করোনায় কাজকর্ম নাই। ঘরে হাঁটু সমান পানি। ঘরের মেঝে ভেঙে গেছে পানির তোড়ে। নিজের বাড়ি থুয়ে ভাড়া করা নৌকায় ঠাঁই নিছি। নৌকা ছাড়া বের হওয়ার উপায় নাই। সাড়ে তিনশ টাকায় ভাড়া করা নৌকায় ৩০ বছরের সংসার নিয়ে আত্মীয়ের বাসায় ছুটতেছি।

নতুন ঠিকানায় গিয়ে সাময়িক দুর্বিষহ জীবনের হয়তো অবসান হবে দিনমজুর সাঈদের। কিন্তু কতদিন কর্মহীন থাকতে হবে জানেন না তিনি।


 

   এই দিন
এই বিভাগের আরো খবর