এই দিন

বৃহস্পতিবার   ০১ অক্টোবর ২০২০   আশ্বিন ১৫ ১৪২৭   ১৩ সফর ১৪৪২

Beta Version
   এই দিন
সর্বশেষ:
আরো একমাস বৃদ্ধি পেল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি থেরাপির জন্য মিরপুরের সিআরপিতে ইউএনও ওয়াহিদা বিশ্ব প্রবীণ দিবস আজ কারাগারে একমাত্র নারী বন্দি মিন্নি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে টেকসই ভবিষ্যতের প্রতি মনোযোগী হতে হবে আজ ‘পানি ভবন’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী আগামী সপ্তাহে প্রকাশ করা হবে এইচএসসি-সমমান পরীক্ষার রুটিন রিফাত হত্যা মামলার রায়, মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসি এমসি কলেজে গণধর্ষণ: পাঁচদিনের রিমান্ডে মাসুম আদালতে আসামিরা, রায় কিছুক্ষণ পর বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল ১০ লাখ ১২ হাজার আজ রিফাত হত্যার রায়,আদালত প্রাঙ্গনে কঠোর নিরাপত্তা
৮১

২০২৫ সালের মধ্যে বিলিয়ন ডলার এবং লক্ষ লোকের কর্মসংস্থানের লক্ষ্য

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ফিফোটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তৌহিদ হোসেন। ছবি: ফেসবুক

ফিফোটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তৌহিদ হোসেন। ছবি: ফেসবুক

করোনাভাইরাসের প্রভাবে অনেক খাতের মতো চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং খাতও। চ্যালেঞ্জে উতরে এগিয়ে যাওয়ার ভাবনা নিয়ে একটি অনলাইন পোর্টালের সাথে কথা বলেছেন এ খাতের সংগঠন বাক্য’র সাধারণ সম্পাদক এবং ফিফোটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তৌহিদ হোসেন। 

প্রশ্ন: করোনা পরিস্থিতিতে গত চার মাসে এ খাতের উদ্যোক্তারা কতটুকু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ?

তৌহিদ হোসেন: বাংলাদেশে আগে যা দুর্যোগ হয়েছে তা অভ্যন্তরীণ দুর্যোগ, কিন্তু করোনার প্রভাবে বিশ্বের সবগুলো দেশই কমবেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিপিও সেক্টরের অভ্যন্তরীণ বাজারের ৫০ শতাংশের বেশি কাজ বন্ধ হয়ে গিয়েছে এবং আন্তর্জাতিক বাজারের ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ কাজ বন্ধ হয়ে গিয়েছে। কারণ আন্তর্জাতিক বাজারের ক্লায়েন্ট করোনার জন্য খুব বাজে ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

প্রশ্ন: গত চার মাসে বিপিও খাতনির্ভর কর্মসংস্থান হারিয়েছে কত মানুষ ?

তৌহিদ হোসেন: এখন পর্যন্ত বিপিও কোম্পানিগুলো তেমনভাবে ছাঁটাই করেনি। কিন্তু বর্তমান অবস্থা যদি অব্যাহত থাকে তাহলে সামনে অনেক লোক ছাঁটাইয়ের মুখে পড়বে।

প্রশ্ন: ক্ষতি সামলাতে সরকারের কাছে প্রণোদনাসহ যেসব আর্থিক সহায়তা চেয়েছিলেন তার কতোখানি পেয়েছেন ?

তৌহিদ হোসেন: সরকার প্রণোদনা ঘোষণা করেছে কিন্তু আসলে সেটা স্বল্প সুদে লোন দেওয়া। যদি কাজ না থাকে, লোন নিলে সেটা তো পরিশোধ করার ব্যবস্থা থাকতে হবে। সে ক্ষেত্রে বাক্য থেকে প্রাইম ব্যাংক এবং আইপিডিসির সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে যেখানে কোলাটেরাল ছাড়া বাক্য মেম্বারদেরকে লোন দেওয়া যাবে।

প্রশ্ন: উদ্ভুত পরিস্থিতিতে উদ্যোক্তা পর্যায়ে সর্বোপরি খাতটির জন্য কোনো ‘ সারভাইভিং মডেল’ বা ‘ কর্ম পরিকল্পনা’ নিয়েছেন ?

তৌহিদ হোসেন : সবাই চেষ্টা করছে ডিসেম্বর পর্যন্ত সারভাইভ করার। কারণ আমরা আশাবাদী যদি ডিসেম্বর পর্যন্ত কার্যক্রম চালাতে পারি তাহলে আউটসোর্সিং খাতে আরও বেশি কর্মসংস্থান তৈরি হতে পারে। আমরা দেখছি বর্তমান অবস্থায় ইন্টারনেটনির্ভর সার্ভিসগুলোতে মানুষ আরও বেশি নির্ভরশীল হয়েছে।

প্রশ্ন: সর্বশেষ বিপিও সামিটে উপস্থাপিত হিসেবে ২০১৭ সালের পরের বছরগুলোতে খাতটিতে কর্মসংস্থানের প্রবৃদ্ধি বেড়েছে দ্বিগুণ হারে। আয়ের পরিমাণও ২০১২ সাল হতে দ্বিগুণ হারে বাড়ছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে ২০২১ সালের মধ্যে আপনাদের যে লক্ষ্য, বিলিয়ন ডলার আয় ও লাখো কর্মসংস্থান- তা অর্জন সম্ভব ? না হলে নতুন লক্ষ্যমাত্রা বা সময় নির্ধারণ করেছেন ?

তৌহিদ হোসেন : এখন আমরা ৪০০ মিলিয়ন ডলারের মতো বাৎসরিক আয় করছি। নতুনভাবে আমরা চিন্তা করছি ২০২৫ সালের আগে এক বিলিয়ন ডলার টার্নওভার এবং এক লক্ষ লোকের কর্মসংস্থান করতে পারব।

প্রশ্ন: দেশের বিপিও বা বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং খাত কলসেন্টার নির্ভরতা হতে কতটুকু বেরিয়ে এসেছে ? দেশে খাতটির বর্তমান কর্মপরিধি কোথায় দাঁড়িয়েছে ?

তৌহিদ হোসেন: বিপিও সেক্টরে হাজার কাজের মধ্যে একটা হচ্ছে কলসেন্টার। শুরুতে কল সেন্টারের ওপরে বাংলাদেশে কাজ বেশি হলেও এখন কলসেন্টারের পাশাপাশি ডিজিটাল মার্কেটিং, মেডিকেল স্ক্রাইব, লিগ্যাল প্রসেস আউটসোর্সিং, ফিন্যান্সিয়াল প্রসেস আউটসোর্সিং, ব্যাক অফিসসহ অনেক রকম কাজ হচ্ছে।

প্রশ্ন: এই যে নিউ নরমাল পৃথিবী, এই সময়ে বিপিও খাতে নতুন সম্ভাবনা কী দেখছেন ?

তৌহিদ হোসেন: কিছু কিছু খাতে কর্মসংস্থান বেড়েছে কিন্তু অধিকাংশ খাতে কর্মসংস্থান কমেছে। আমরা আশাবাদী আগামী বছর থেকে  ইন্টারনেটনির্ভর অনেক সেবা বাড়বে এবং বিপিও সেক্টরের কাজও নতুন করে তৈরি হবে।
 

সূত্র: টেকশহর ডট কম

   এই দিন
এই বিভাগের আরো খবর