এই দিন

শনিবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   আশ্বিন ১০ ১৪২৭   ০৮ সফর ১৪৪২

Beta Version
   এই দিন
সর্বশেষ:
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার ১৫ দিন পর হবে এইচএসসি পরীক্ষা কক্সবাজারের ৩৪ পুলিশ পরিদর্শককে বদলি হাসপাতালগুলো ডাকাতির মতো পয়সা নিচ্ছে: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিক জেদ্দা-আবুধাবিতে গোপন বৈঠক হয়, সরকার সব খবর পায়: কাদের ভিপি নূরকে হয়রানি বন্ধ করতে ডা. জাফরুল্লাহর আহ্বান করোনায় আরও ২৮ প্রাণহানি, শনাক্ত ১৫৪০
১০২৩৭

ফেসবুকে সাবেক অর্থমন্ত্রীকে নিয়ে অপপ্রচার, সতর্ক থাকার পরামর্শ

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০২০  

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহার করে সমাজ ও রাষ্ট্র বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের ধারাবাহিক অপচেষ্টার অংশ হিসেবে এবার গুজব রটানো হয়েছে আওয়ামী লীগ সরকারের সাবেক সফল অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও তার পরিবার নিয়ে। অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী ফজলুল বারী নামের এক ব্যক্তি ফেসবুকে সাবেক অর্থমন্ত্রীকে নিয়ে গুজব ছড়িয়েছেন। অপপ্রচার রটিয়ে বলা হচ্ছে, সাবেক এই মন্ত্রীকে তার নিজের বাড়িতে উঠতে দিতে চাইছেন না ছেলে শাহেদ মুহিত। যা পুরোপুরি গুজব ও মিথ্যাচার বলে জানিয়েছেন সাবেক অর্থমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠজন এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। এসব গুজবে কান না দেয়ার জন্য দেশবাসীকে পরামর্শ দিয়েছেন তিনি ।

সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের পরিবার নিয়ে ছড়ানো গুজবের বিষয়ে জানতে চাইলে মোস্তাফা জব্বার এই প্রতিবেদককে বলেন, সাবেক অর্থমন্ত্রীর ধানমন্ডিতে কোনও বাড়ি নেই। তিনি কখনো ধানমন্ডিতে ছিলেনও না। তিনি বর্তমানে তার ছেলে ও পুত্রবধূসহ পুরো পরিবার নিয়ে রাজধানীর বনানীর কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউতে থাকেন। এর আগে তিনি গুলশান-২ নম্বরে বসবাস করতেন। পরিবারের সবার সঙ্গেও দারুণ হৃদ্যতাপূর্ণ সম্পর্ক সাবেক এই মন্ত্রীর। মুহিত সাহেবের সাথে আমার পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে। আমি নিজেই সাবেক অর্থমন্ত্রীর সাথে কথা বলেছি। খোঁজ নিয়ে জেনেছি যে, তাদের পরিবারের এই ধরনের কোন ঘটনাই ঘটেনি। সাবেক একজন স্বনামধন্য অর্থমন্ত্রীকে নিয়ে এমন অপকর্মের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এ ব্যাপারে মাননীয় মন্ত্রী ইতিমধ্যে তার ফেসবুকে জনগণকে সতর্ক করে ইতিমধ্যে বার্তা প্রদান করেছেন।

তিনি আরও জানান, এ ধরনের সংবাদ সম্পূর্ণই গুজব। পুত্রবধূকে তিনি সব সময়ই তার মেয়ের মতো স্নেহ করেন এবং তার পুত্রবধূ মানতাহাও তাকে বাবার মতোই সম্মান ও শ্রদ্ধা করেন।
মাননীয় মন্ত্রী আরো বলেন, বিভিন্ন সময়ে সরকারের বর্তমান ও সাবেক মন্ত্রী এবং এমপিদের ব্যাপারে গুজবের ঘটনা এটাই প্রথম নয়। কোনও একটি চক্র ক্রমাগতভাবে এই গুজব ছড়িয়ে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে এই অপপ্রচার নতুন কিছু নয়। তবে এই করোনা পরিস্থিতির মধ্যে এমন একজন বয়োজ্যেষ্ঠ লোককে নিয়ে যারা অপপ্রচার করতে পারে, তাদের আসলে কোন নামে সংজ্ঞায়িত করা যায়- আমার জানা নেই। এরা মানুষ হওয়ারই যোগ্য নয়।’

তিনি এসব গুজব ও অপপ্রচার থেকে সতর্ক থাকতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান এবং যারা এসব ছড়াচ্ছে তাদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনারও দাবি জানান।

   এই দিন
এই বিভাগের আরো খবর