মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ২৩ ১৪২৬   ১২ শা'বান ১৪৪১

Beta Version
সর্বশেষ:
করোনায় মৃত ব্যক্তিকে নির্ভয়ে দাফন করা যাবে: ডা. জাফরুল্লাহ ছোটখাটো অপরাধে জেলখাটাদের মুক্তির নীতিমালা করার নির্দেশ রোজায় সকাল ৯টা থেকে বিকাল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত অফিস সময় নির্ধারণ করেছে সরকার ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত গার্মেন্টস বন্ধ রাখতে বিজিএমইএ’র আহ্বান জুমায় সর্বোচ্চ ১০ জন, নামাজ-প্রার্থনা নিজঘরে আদায়ের নির্দেশ করোনায় আরও চার জনের মৃত্যু করোনাভাইরাসে দুদক পরিচালকের মৃত্যু! দেশে ২৪ ঘন্টায় মধ্যে নতুন করে ৩৫ জন করোনা আক্রান্ত
৪০

প্রতি শতাব্দীর ২০ সালে আসে ভয়ঙ্কর মহামারী!

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২২ মার্চ ২০২০  

করোনাভাইরাসের প্রকোপে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO করোনাকে ‘মহামারির চেয়েও ভয়ঙ্কর’ বলেছে। প্রতিদিন হু হু করে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।

তবে মহামারীর এই ঘটনা এবার প্রথম নয়। দেখা যাচ্ছে প্রতি শতাব্দীতে একবার করে বিভিন্ন মহামারী মারাত্মকভাবে আঘাত হেনেছে। প্রত্যেক শতাব্দীর ২০ সালে ফিরে আসে ভয়ঙ্কর সব মহামারী। আর কেড়ে নেয় হাজার হাজার মানুষের প্রাণ।

১৯২০ সাল

২০২০ সালের আগে ১৯২০ সালে ‘স্প্যানিশ ফ্লু’র দাপটে মৃত্যু হয় সারা বিশ্বের প্রায় ১ কোটি ৭০ লাখ মানুষের। এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন প্রায় ৫০ কোটি মানুষ।

১৮২০ সাল

১৮২০ সালে মহামারি ছিল কলেরা। এই কলেরায় মূলত আর্থিকভাবে দুর্বল মানুষের মৃত্যুর হার সবচেয়ে বেশি ছিল। ভারতীয় উপমহাদেশে বসবাসকারী ইউরোপিয়ানদের উপর সে সময় কলেরা খুব বেশি প্রভাব ফেলতে পারেনি। মূলত বন্যার পর পানিবাহিত পেটের অসুখে সে সময় প্রাণ হারান হাজার হাজার মানুষ।

১৭২০ সাল

১৭২০ সালে ফ্রান্সের মার্সেইতে প্রাদুর্ভাব ঘটেছিল প্লেগ রোগের। এই শহরে সে সময় মাত্র দু বছরের ব্যবধানে মৃত্যু হয় প্রায় ৫০ হাজার মানুষের। সারা বিশ্বের সে সময় প্রায় ১০ লক্ষ মানুষের প্রাণ কেড়েছিল প্লেগ।

চিকিৎসা ব্যবস্থা বর্তমানে অনেক উন্নত। উন্নত হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থাও। আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের সহায়তায় হয়তো করোনাভাইরাসের সংক্রমণকে রুখে দেওয়া যাবে। তবে ১০০ বছর পর পর কোনও না কোনও মহামারীর ফিরে আসার পেছনে কোনও কারণ কি এ নিয়ে মানুষের মনে এখন কৌতূহল।

   এই দিন
এই বিভাগের আরো খবর