এই দিন

শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০   শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭   ২৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beta Version
   এই দিন
সর্বশেষ:
করোনা এমনিতেই বাংলাদেশ থেকে চলে যাবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৩৪, শনাক্ত ২৬৪৪ খ্যাতিমান চিত্রশিল্পী মুর্তজা বশীর আর নেই বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা বার্সাকে ৮–২ গোলে বিধস্ত করে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে বায়ার্ন জাতীয় শোক দিবস আজ যত দিন বেঁচে আছি এতিমদের পাশে আছি : প্রধানমন্ত্রী
৩০

নেশার টাকা না দেয়ায় ভাইকে গুলি করে হত্যা

জেলা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২৯ জুলাই ২০২০  

নেশার টাকা না দেয়ায় বড় ভাইকে গুলি করে হত্যা করেছে ছোট ভাই। বুধবার (২৯ জুলাই) সকাল ১০ টার দিকে বেনাপোল পোর্ট থানার কাগজপকুর গ্রামে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।

বড় ভাই রাসেল হোসেনকে গুলি করে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় ছোট ভাই আমজাদ হোসেনকে আটক করেছে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ। নিহত রাসেল হোসেন ও তার ভাই আমজাদ হোসেন কাগজপুকর গ্রামের ইদ্রিস আলী ইদুর ছেলে। 

স্থানীয়রা জানান, বেনাপোল শার্শার কুখ্যাত সন্ত্রাসী আমিরুলের সেকেন্ড ইন কমান্ড ছিলেন আমজাদ হোসেন। আমিরুল নিহত হওয়ার পর থেকে আমজাদ কাগজপুকুর বেনাপোল শার্শা এলাকায় ছিনতাইসহ নানা ধরনের অপরাধ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। 

নিহতের চাচা আব্দুল করিম বলেন, মঙ্গলবার রাতে আমজাদ নেশার জন্য তার ভাই রাসেলের কাছে ২০ হাজার টাকা দাবি করে। এ নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। বুধবার সকালে আবার সে রাসেলের কাছে টাকা দাবি করে। রাসেল টাকা দিতে অস্বীকার করলে আমজাদ তার গলায় পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করে হত্যা করে। পরে রাসেলকে বুরুজ বাগান হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। 

বেনাপোল বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার আব্দুল ওহাব বলেন, খবর পেয়ে হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে ওই যুবককে আটক করি। এ সময় তার কাছ থেকে একটি ছোট চাকু পাওয়া যায়। নিশ্চিত হতে না পেরে ওই যুবককে ছেড়ে দেয়ার পর পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে গেছে। 

বেনাপোল পোর্ট থানার ডিউটি অফিসার এএসআই রোকনুজ্জামান বলেন, আমজাদ ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় ওসি মামুন খানের নেতৃত্বে তাকে সীমান্তের সাদিপুর ইছামতি নদী থেকে আটক করা হয়। বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি মামুন খান আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন আসামি এখন থানা হাজতে রয়েছে।

   এই দিন
এই বিভাগের আরো খবর