শুক্রবার   ০৩ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ১৯ ১৪২৬   ০৯ শা'বান ১৪৪১

Beta Version
৪৪

নেতা-কর্মীদের ভিড়ে করোনা হতে পারে বেগম খালেদা জিয়ার!

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৫ মার্চ ২০২০  

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়েছে সরকার। তাকে ছাড়িয়ে আনতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে শত শত নেতাকর্মীরা ভিড় করে। এক্ষেত্রে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন বেগম খালেদা জিয়া।  

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বাসায় নিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) পৌঁছানোর পর নেতা-কর্মীরাও সেখানে ভিড় করে। 

এরপর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রবেশ করলে হাসপাতালে থাকা নেতাকর্মীরা তাকে ঘিরে ধরেন। এ সময় তিনি কিছুটা বিরক্ত বোধ করেন।

সরকারের দেয়া শর্তের ভিত্তিতে আজ বিকালে মুক্তি পেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। 

মুক্তি পাওয়ার পরই বেগম খালেদা জিয়াকে গাড়িতে করে তার বাসা ফিরোজাতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। কিন্তু করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে তার নেতাকর্মীদের করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষায় কোনো ধরনের নিরাপত্তা সরঞ্জাম নেই। 

তাদের হাতে নেই কোনো হ্যান্ড গ্লাভস। মুখে নেই কোনো মাস্ক। এক্ষেত্রে বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে করোনা ভাইরাস ছাড়ানো আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। আক্রান্ত হতে পারেন বেগম খালেদা জিয়াও। 

খালেদা জিয়ার সাজা ছয় মাসের জন্য স্থগিত রেখে তাকে ছয় মাসের জন্য মুক্তি দেয়ার বিষয়ে মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) সিদ্ধান্তের কথা জানায় সরকার। এদিন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক তার বাসায় সংবাদ ব্রিফিং করে এ তথ্য জানান। এ সংক্রান্ত সুপারিশ করে আইন মন্ত্রণালয় থেকে ফাইল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান আইনমন্ত্রী।

মুক্তি পেলেও খালেদা জিয়াকে বেশকিছু শর্ত পালন করতে হবে উল্লেখ করে জানান আইনমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আইনি প্রক্রিয়ায় আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ ধারার উপধারা ১-এ খালেদা জিয়ার সাজা ছয় মাসের জন্য স্থগিত রেখে তাকে ঢাকায় নিজ বাসায় থেকে তার চিকিৎসা গ্রহণ করার শর্তে। এই সময় দেশের বাইরে গমন না করার শর্তে মুক্তি দেওয়ার জন্য আমি মতামত দিয়েছি।’

সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও বলেন, মানবিক বিবেচনায় খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি তার ছোট ভাইয়ের জিম্মায় থাকবেন। এ সময় তিনি কেন রাজনীতি করবেন?

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার সূত্র জানিয়েছে, খালেদা জিয়ার মুক্তির আদেশ আইজি প্রিজনের কাছে পৌঁছেছে। সেখান থেকে এটি ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপারের কাছে যাবে। জেল সুপার ওই আদেশ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ে যাবেন।

খালেদা মুক্তির পর সংবর্ধনা দিতে বিএসএমএমইউর সামনে নেতাকর্মীরা

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মুক্তি পেতে পারেন আজ। এ খবরে পরিবারের সদস্য ও বিএনপির মহাসচিবসহ অন্যান নেতাকর্মীরা হাসপাতালের সামনে অপেক্ষা করছেন।

বিএসএমএমইউর প্রিজন সেলে আটক খালেদা জিয়ার অপেক্ষায় আছেন বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ড্যাবের কয়েকজন নেতা, মহিলা দল ও সহযোগী সংগঠনের কিছু নেতাকর্মী। পরিবারের সদস্য, বিএসএমএমইউর সামনে কারা কর্তৃপক্ষের সদস্যরাও উপস্থিত আছেন।

খালেদা জিয়া জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টে দুর্নীতির দুটি মামলায় সাজা ভোগ করছেন ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে।  

   এই দিন
এই বিভাগের আরো খবর