এই দিন

রোববার   ০৫ জুলাই ২০২০   আষাঢ় ২০ ১৪২৭   ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beta Version
সর্বশেষ:
১৪ জুলাই বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনে ভোট ভুডুড়ে বিদ্যুৎ বিল: ডিপিডিসির ৪ প্রকৌশলী বরখাস্ত, শোকজ ৩৬ বিমানের অধিকাংশ আন্তর্জাতিক ফ্লাইট স্থগিত করোনায় মৃত্যু শীর্ষে ঢাকা, সবচেয়ে কম ময়মনসিংহে ওয়ানডেতে শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ক্রিকেটার সাকিব, ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর শুভেচ্ছা আবার করোনা পজিটিভ মাশরাফির গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু ২৯, শনাক্ত ৩২৮৮ ঈদের আগেই সব শ্রমিকের বেতন-ভাতা পরিশোধের আহ্বান ওবায়দুল কাদেরের চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ১৪ দিনের জন্য লকডাউন ঘোষণা সাবেক মন্ত্রী টি এম গিয়াস উদ্দিন আর নেই
১২৩

টিকটকসহ ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করলো ভারত

প্রকাশিত: ৩০ জুন ২০২০  

চীনা অ্যাপ নির্মাতা বাইটড্যান্সের জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক, আলিবাবার তৈরি ইউসি ব্রাউজার ও চীনের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ নেটওয়ার্ক প্রতিষ্ঠান টেনসেন্ট এর জনপ্রিয় বার্তা আদান–প্রদানের অ্যাপ উইচ্যাট এবং শেয়ারইট ছাড়াও ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে ভারত। যার বেশিরভাগই চীনা।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী সোমবার ভারত সরকারের পক্ষ থেকে এক বিবৃতি দিয়ে এসব অ্যাপের ওপর নিষেধাজ্ঞার কথা জানানো হয়। সরকারি ওই বিবৃতিতে এর নেপথ্য কারণ হিসেবে নিরাপত্তা শঙ্কা ও ঝুঁকির কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওই বিবৃতিতে বলা হচ্ছে, এই অ্যাপগুলো ‘ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা, প্রতিরক্ষা, রাষ্ট্রীয় সুরক্ষা এবং জনশৃঙ্খলার জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।’ তাই এসব অ্যাপ দেশে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

জুনের মাঝামাঝি বিতর্কিত লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনাদের হামলায় ভারতের অন্তত ২০ জওয়ান নিহত পর দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা শুরু হয়। দুই দেশের মধ্যকার সংঘর্ষের পর চীনা পণ্য বর্জনের ডাক ওঠে। দেশটির সরকারের পেছনে যে এমন দাবি ওঠাই মুখ্য কারণ তার বেশ স্পষ্ট।

চীনা অ্যাপ নির্মাতা বাইটড্যান্সের জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক। বিভিন্ন গান, বিখ্যাত সিনেমার সংলাপসহ নানা রকম মজাদার অডিওর সঙ্গে ঠোঁট মিলিয়ে ছোট ভিডিও তৈরি করে আপলোড করা যায় টিকটক অ্যাপে। ২০১৭ সালে অ্যাপটির যাত্রা শুরু হয়। বিশ্বজুড়ে এই অ্যাপটির জনপ্রিয়তা এখন তুঙ্গে।

এছাড়া বিশ্বের ব্রাউজার ব্যবহার তালিকায় শীর্ষে রয়েছে গুগল ক্রোম। বাজারে ক্রোমের অংশীদারিত্ব ৩৭ দশমিক ৪৬ শতাংশ। ১৭ দশমিক ৯১ শতাংশ অংশীদারিত্ব নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে অ্যাপলের সাফারি। এরপরেই আছে ইউসি (১৬ দশমিক ৯১ শতাংশ) এবং অ্যান্ড্রয়েড ব্রাউজার (১১ দশমিক ৭৫ শতাংশ)। 

   এই দিন
এই বিভাগের আরো খবর