এই দিন

শনিবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   আশ্বিন ১০ ১৪২৭   ০৮ সফর ১৪৪২

Beta Version
   এই দিন
সর্বশেষ:
দেশে বেড়েছে করোনায় মৃত্যু,নতুন শনাক্ত ১১০৬ প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন আজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার ১৫ দিন পর হবে এইচএসসি পরীক্ষা কক্সবাজারের ৩৪ পুলিশ পরিদর্শককে বদলি হাসপাতালগুলো ডাকাতির মতো পয়সা নিচ্ছে: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিক জেদ্দা-আবুধাবিতে গোপন বৈঠক হয়, সরকার সব খবর পায়: কাদের ভিপি নূরকে হয়রানি বন্ধ করতে ডা. জাফরুল্লাহর আহ্বান
১১৪

জয় দিয়ে সিরিজ শুরু অস্ট্রেলিয়ার

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০  

দীর্ঘ বিরতির পর ক্রিকেটে ফেরাটা সুখকর হয়নি অস্ট্রেলিয়ার। টি-টোয়েন্টিতে ফেরার সিরিজে হারতে হয়েছে ২-১ ব্যবধানে। সে হতাশা কাটিয়ে ওয়ানডেতে ছন্দ ফিরে পেয়েছে অসিরা। প্রথম ওয়ানডে ১৯ রানে জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে অ্যারন ফিঞ্চের দল। অস্ট্রেলিয়ার ২৯৪ রান তাড়ায় ৯ উইকেটে ২৭৫ রান করেছে ইংল্যান্ড।

আগের সেরা অপরাজিত ৬৭ ছাড়িয়ে বিলিংস করেন ১১৮ রান। ম্যাচের শেষ বলে আউট হওয়া এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানের ১১০ বলের ইনিংসে ১৪টি চারের পাশে দুটি ছক্কা। অস্ট্রেলিয়ার জয়ে বড় অবদান জ্যাম্পা ও হেইজেলউডের। প্রয়োজনের সময় উইকেট এনে দেওয়া লেগ স্পিনার জ্যাম্পা ৫৫ রানে নেন ৪ উইকেট, পেসার হেইজেলউড ৩ উইকেট নেন ২৬ রানে।

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি অস্ট্রেলিয়ার। চতুর্থ ওভারে জফ্রা আর্চারের ৯০ মাইল গতির ডেলিভারিতে পরাস্ত হয়ে বোল্ড হয়ে যান ডেভিড ওয়ার্নার।

 এর আগে টসে হেরে প্রথমে ব্যাটিং করে ম্যাক্সওয়েরের ৭৭ ও মার্সের ৭৩ রানে ভর করে ইংল্যান্ডের এই মাঠের সর্বচ্চো ২৯৫ রান তুলতে সক্ষম হয়।

আর্চার ও উড ৩টি করে উইকেট নিজেদের নামরে পাশে যুক্ত করেছে।

অস্ট্রেলিয়ার শুরু মোটেই ভাল ছিল না। দলীয় ৪ রানের অস্ট্রেলিয়া নিজেদের প্রথম উইকেট হারায়।

১২৩ রান তুলতেই সাজ ঘরের পথ ধরে ৫ অজি ব্যাটসম্যান।

এর পরে ম্যাক্সওয়েল ও মার্সের শতরানের জুটিতে বড় রানের ভিত পায় অস্ট্রেলিয়া।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
অস্ট্রেলিয়া: ৫০ ওভারে ২৯৪/৯ (ওয়ার্নার ৬, ফিঞ্চ ১৬, স্টয়নিস ৪৩, লাবুশেন ২১, মার্শ ৭৩, কেয়ারি ১০, ম্যাক্সওয়েল ৭৭, কামিন্স ৯, স্টার্ক ১৯*, জ্যাম্পা ৫, হেইজেলউড ০*; ওকস ১০-০-৫৯-১, আর্চার ১০-০-৫৭-৩, উড ১০-০-৫৪-৩, মইন ১০-০-৫৯-০, রশিদ ১০-০-৫৫-২)
ইংল্যান্ড: ৫০ ওভারে ২৭৫/৯ (রয় ৩, বেয়ারস্টো ৮৪, রুট ১, মর্গ্যান ২৩, বাটলার ১, বিলিংস ১১৮, মইন ৬, ওকস ১০, রশিদ ৫, আর্চার ৮*; স্টার্ক ১০-০-৪৭-০, হেইজেলউড ১০-৩-২৬-৩, কামিন্স ১০-০-৭৪-১, জ্যাম্পা ১০-০-৫৫-৪, মার্শ ৫-১-২৯-১, ম্যাক্সওয়েল ৩-০-১৯-০, স্টয়নিস ২-০-১৫-০)
ফল: অস্ট্রেলিয়া ১৯ রানে জয়ী
ম্যান অব দা ম্যাচ: জস হেইজেলউড

   এই দিন