এই দিন

বৃহস্পতিবার   ০১ অক্টোবর ২০২০   আশ্বিন ১৫ ১৪২৭   ১৩ সফর ১৪৪২

Beta Version
   এই দিন
সর্বশেষ:
থেরাপির জন্য মিরপুরের সিআরপিতে ইউএনও ওয়াহিদা বিশ্ব প্রবীণ দিবস আজ কারাগারে একমাত্র নারী বন্দি মিন্নি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে টেকসই ভবিষ্যতের প্রতি মনোযোগী হতে হবে আজ ‘পানি ভবন’ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী আগামী সপ্তাহে প্রকাশ করা হবে এইচএসসি-সমমান পরীক্ষার রুটিন রিফাত হত্যা মামলার রায়, মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসি এমসি কলেজে গণধর্ষণ: পাঁচদিনের রিমান্ডে মাসুম আদালতে আসামিরা, রায় কিছুক্ষণ পর বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল ১০ লাখ ১২ হাজার আজ রিফাত হত্যার রায়,আদালত প্রাঙ্গনে কঠোর নিরাপত্তা
১২২

গ্রামে পানি আনতে ৩০ বছর ধরে একাই খাল কাটলেন  

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০  

রাস্তার অভাবে সময়মত স্ত্রীকে হাসপাতালে নিতে পারেননি ভারতের বিহার রাজ্যের গয়ার দশরথ মাঝি। স্ত্রীর মৃত্যুশোকে আস্ত পাহাড় কেটে রাস্তা বানিয়েছিলেন তিনি। সেই কাহিনি নিয়ে তৈরি সিনেমা মাঝি: দ্য মাউন্টেন ম্যান দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছিল। এবার একই এলাকার আরেক ব্যক্তি একাই তিন কিলোমিটার লম্বা খাল কেটেছেন। শুধু নিজের জন্য নয়, গ্রামের সবার কৃষিকাজে পানির জোগান দিতেই তিনি এ কাজ করেছেন। এ কাজে তাঁর সময় লেগেছে ৩০ বছর।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি গতকাল রোববার এক খবরে জানায়, ওই বৃদ্ধের নাম লাঙ্গি ভূঁইয়া। তিনি বিহার রাজ্যের গয়ার লাহথুয়ার কোথিলাওয়া গ্রামের বাসিন্দা। এই গ্রামটির চারপাশ ঘিরে ঘন জঙ্গল আর পাহাড়–পর্বত। গয়া জেলা সদর থেকে এই গ্রামের দূরত্ব ৮০ কিলোমিটার। গ্রামটি মাওবাদীদের ঘাঁটি বলে পরিচিত। কোথিলাওয়া গ্রামের বাসিন্দাদের জীবিকা বলতে কৃষিকাজ আর গবাদিপশু লালন–পালন। সেখানে বর্ষার মৌসুমে পর্বতমালা থেকে পানি গড়িয়ে নদীতে যায়। নদী থেকে সেই পানি ব্যবহার করা খুবই কষ্টসাধ্য। সেই বিষয়টি উপলব্ধি করেই পাহাড় থেকে গড়িয়ে পড়া বৃষ্টিজল গ্রামে আনতে খাল কাটা শুরু করেন লাঙ্গি।

লাঙ্গি ভূঁইয়া ৩০ বছর ধরে খালটি কাটলেও তাঁর এ কাজে কেউ সাহায্যের হাত বাড়াননি। তাঁর এই বিরল সংগ্রামের কথা জানাজানি হওয়ার পর ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সয়লাব তাঁর কঠোর সংগ্রামের কাহিনিতে। লাঙ্গি ভূঁইয়া বলেন, ‘খালটি কাটতে আমার ৩০ বছর লেগেছে। এই খালের মাধ্যমে গ্রামের একটি পুকুরে পানি আনা হয়েছে। ৩০ বছর ধরে পাশের জঙ্গলে গবাদিপশু চরানোর পাশাপাশি খালটি খনন করি। এই কাজে আমাকে কেউ সাহায্য করেনি। গ্রামবাসী জীবিকার জন্য শহরে যায়। কিন্তু আমি থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম।’

স্থানীয় বাসিন্দা পাতি মাঝি বলেন, ৩০ বছর ধরে তিনি (লাঙ্গি) একাই খালটি কেটেছেন। এটা পশুপালন ও সেচকাজে খুব কাজে আসবে। গয়ার বাসিন্দা স্কুলশিক্ষক রাম বিলাস সিং বলেছেন, প্রচুর লোক এই খাল থেকে সুবিধা পাবেন। তাঁর (লাঙ্গি) গৌরবময় ওই কাজের কথা এখন সবার মুখে মুখে। তিনি সবার কাছে পরিচিত হয়ে উঠছেন।

   এই দিন
এই বিভাগের আরো খবর