শুক্রবার   ০৩ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ১৯ ১৪২৬   ০৯ শা'বান ১৪৪১

Beta Version
সর্বশেষ:
করোনা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন ৫ এপ্রিল তথ্য গোপন করে এই মহামারী এড়ানো যাবে না: রিজভী বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৯ লাখ ছাড়িয়ে, প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ৪৮ হাজার করোনা সর্তকতায় আজ থেকে কঠোর অবস্থানে সেনাবাহিনী ঘর থেকে তুলে নিয়ে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা ঢাকা ছাড়লেন ৩২৭ জাপানি বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস আজ সাধারণ ছুটিতে ব্যাংকে লেনদেনের সময় বাড়ল করোনায় মৃত ব্যক্তির থেকে ভাইরাস ছড়ায় না: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রতি উপজেলা থেকে করোনার অন্তত দুজনের নমুনা সংগ্রহের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর দেশে আরও দুজন করোনা রোগী শনাক্ত ,২৪ ঘণ্টায় দেশে মারা যাননি কেউ: এমআইএস
৭৯৬৫

আবরার হত্যা ও নোবেল পদক নিয়ে নূরুল আজিম রনি’র স্ট্যাটাস

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর ২০১৯  

আবরার হত্যাকাণ্ড নিয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ. জ. ম. নাছির উদ্দিনের একটি বক্তব্য যখন সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছে ঠিক তখন চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নূরুল আজিম রনি নিজের ফেসবুক পেইজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

দৈনিক এই দিনের পাঠকদের জন্য স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-- 

‘‘উনার বক্তব্যটি একান্তই উনার ব্যক্তিগত। উনার বক্তব্য নিয়ে আওয়ামী লীগ সংগঠনকে ট্রল বানানোর কিছু নেই।

আর উনার যে বক্তব্য নিয়ে হৈচৈ করছেন সেখানে তথ্যগত ভুলও ছিলো। আবরার হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছিলো গত ৬ অক্টোবর। আর শান্তিতে নোবেল পুরষ্কার ঘোষনা করা হয়েছিলো ১১ অক্টোবর। সুতরাং উনার বক্তব্যটি একান্তই উনার ব্যক্তিগত অজ্ঞতার বহি:প্রকাশ! এটি সাংগঠনিক কোন বক্তব্য ছিলোনা।

আর মূল কথা হলো, শান্তিতে এ বছর নোবেল প্রাইজের জন্য  মনোনায়ন পেয়েছিলো ২২৩ জন ব্যক্তি। এই মনোনয়নটা নোবেল কমিটিই করে থাকেন, আমরা করিনা। এখানে আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রীর নাম থাকাটা আমাদের সবার জন্য গর্বের। কিন্তু শান্তিতে নোবেল পুরষ্কার শেখ হাসিনা কখনো পাবেন না। কারন তিনি বাংলাদেশের মাটিতে পশ্চিমাদের নৌ-ঘাঁটি, বিমান ঘাঁটি করার অনুমতি দেননি। পশ্চিমাদের দালালী করা ছাড়া এ পুরস্কার বাংলাদেশের কেউ পাবেনা। যার কারনে দশ লাখ রোহিঙ্গার জীবন গুলির মুখ থেকে ফিরিয়ে আনার পরেও ২০১৮ সালে নোবেল কমিটির শর্ট লিষ্ট থেকে তিনি বাদ পড়েছিলেন। কারন একটাই!!! তিনি বাংলার মাটিতে পশ্চিমাদের কখনোই ঠাঁই দেবেন না।

ইতিহাস বলছে, এই উপমহাদেশে কোন রাজনৈতিক নেতা বিশ্বখ্যাত হওয়ার পর বেশিদিন বাঁচতে পারেনি। প্রত্যেককেই অস্বাভাবিক মৃত্যুবরণ করতে হয়েছে দেশী বিদেশী ষড়যন্ত্রের কারনে। তাই আমার ব্যক্তিগত মতামত হচ্ছে, শেখ হাসিনাকে নোবেল প্রাইজ দিয়ে নতুন করে বিশ্বখ্যাত বানানোর প্রয়োজন নেই। টেলিভিশনে প্রধানমন্ত্রীকে যখন বিশ্বের সব নেতাদের মধ্যে দাড়িয়ে থাকতে দেখি তখন আমার কাছে তিনি একজনকেই কিন্তু ‘বিশ্বনন্দিনী‘ মনে হয়।’’

নূরুল আজিম রনি
সাবেক সাধারন সম্পাদক
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চট্টগ্রাম মহানগর

   এই দিন
এই বিভাগের আরো খবর